ইসরায়েলে ইহুদিদের তুলনায় আরবদের মধ্যে খুনখারাবি বেশি হওয়ার কারণ কী?

|

২০২০ সালে ইসরায়েলে খুন হয়েছে ৯৭ জন আরব নাগরিক। তার পাশাপাশি ইহুদিদের মধ্যে খুন হয়েছে এর অর্ধেকেরও কম। ্প্প্লন

ইসরায়েলের নাগরিকদের মধ্যে সংখ্যালঘু একটি গোষ্ঠী হলো আরব। সাম্প্রতিক কয়েক বছরে সবচেয়ে বেশি খুনখারাবির ঘটনা ঘটেছে এই আরবদের মধ্যেই।

অ্যাব্রাহাম ইনিশিয়েটিভ গ্রুপ নামে একটি ইহুদি আরব সংগঠনের বরাতে একটি জরিপের তথ্য দিয়ে বিবিসি বলেছে, ২০২০ সালে ইসরায়েলে খুন হয়েছে ৯৭ জন আরব নাগরিক। তার পাশাপাশি ইহুদিদের মধ্যে খুন হয়েছে এর অর্ধেকেরও কম।

নিহতদের পরিবারগুলোর দাবি আরবরা যেসব এলাকায় বাস করে সেখানে সহিংসতা বেড়ে যাওয়ার একটি প্রধান কারণ পুলিশের নিষ্ক্রিয়তা।

ছেলে খুন হয়েছে এমন একজন আরব কাঁদতে কাঁদতে বিবিসির কাছে অভিযোগ করেন, পুলিশ কিছুই করছে না। আরব সম্প্রদায়ের মধ্যে এ ধরনের ঘটনা ঘটলে তারা গায়ে মাখে না।

হারেৎয নামে স্থানীয় একটি সংবাদপত্রের খবর জানাচ্ছে, এ বছর যতগুলো খুনের ঘটনা ঘটেছে, পুলিশ তার মধ্যে আরবদের মাত্র ২৩ শতাংশ ঘটনায় পুলিশ পদক্ষেপ নিয়েছে, অন্যদিকে পুলিশ ইহুদিদের মধ্যে ৭১ শতাংশ ঘটনার সমাধান করেছে।

পুলিশ এই পরিসংখ্যানের ব্যাপারে কোনো মন্তব্য করেনি বলে জানায় বিবিসি। তবে তারা বলেছে, ক্ষমা চাওয়ার মত কিছু তারা করেনি।

তবে আরব অধ্যুষিত এলাকার অপরাধ দমন বিভাগের নতুন প্রধান কমান্ডার ইয়াগাল এজরা বলছেন, তিনি এই বৈষম্যের কলঙ্ক ঘোচাতে চান। এছাড়াও তিনি জানান, আরবদের জন্য পুলিশ অনেক অর্থ বিনিয়োগ করছে।

তবে তিনি বলেন, আরবরা প্রায়ই এ ধরনের ঘটনায় পুলিশকে সাহায্য করতে চায় না। পুলিশ পৌঁছানোর আগেই তারা রক্ত ধুয়ে মুছে ফেলে বা বুলেট লুকিয়ে ফেলে।

তবে ইসরায়েলের বর্তমান জোট সরকারে এবার প্রথমবারের মতো একটি মুসলিম দলকে অন্তর্ভুক্ত করা হয়েছে। দলটি আরবদের সমস্যাগুলোকে সমাধানের রাজনৈতিক প্রতিশ্রুতি দিয়েছে।


সম্পর্কিত আরও পড়ুন





Leave a reply