মেঘনা-তেতুলিয়া নদীতে ভরা মৌসুমেও কাঙ্ক্ষিত ইলিশ ধরা না পড়ায় হতাশ জেলেরা

|

ভরা মৌসুমের দেড় মাস পার হলেও কাঙ্ক্ষিত ইলিশ না পাওয়ায় জেলেরা হতাশ।

সাগরে যখন ঝাঁকে ঝাঁকে ইলিশ ধরা পড়ছে তখন অনেকটা বিপরীত চিত্র ভোলার মেঘনা-তেতুলিয়া নদীতে। ভরা মৌসুমের দেড় মাস পার হলেও কাঙ্ক্ষিত ইলিশ না পাওয়ায় হতাশ জেলেরা।

ভোলার মেঘনা ও তেতুলিয়া নদীতে বেহুন্দি, চরঘেরাসহ বিভিন্ন নিষিদ্ধ জাল ও মশারি ব্যবহার করে মাছ ধরা হয়। জেলেরা বলছেন, একদিকে নদীতে নতুন নতুন ডুবোচর সৃষ্টি হচ্ছে অন্যদিকে নিষিদ্ধ পদ্ধতিতে মাছ ধরা বাড়ছে। এতে সাগর থেকে নদীতে আসতে বাধা পাচ্ছে ইলিশ। তাই ভরা মৌসুমের দেড় মাস পার হলেও নদীতে মাছের রাজার দেখা মিলছে না।

ঘাট আর অবতরণ কেন্দ্রে যেসব ইলিশ বিক্রি হচ্ছে তার অধিকাংশই সাগরের। নদীতে ইলিশ কম থাকায় এনজিও আর মহাজনের ঋণ পরিশোধ নিয়ে দুঃশ্চিন্তায় জেলে ও ক্ষুদ্র ব্যবসায়ীরা।

নিষিদ্ধ জাল ব্যবহারের বিরুদ্ধে অভিযান অব্যাহত রয়েছে দাবি করে ইলিশ কম পাওয়ার কারণ হিসেবে নদীর নাব্য সঙ্কটকে দায়ী করেছেন ভোলা জেলার মৎস্য কর্মকর্তা এস এম আজহারুল ইসলাম। বৃষ্টিপাত বাড়লে নদীতে রূপালি ঝিলিক বাড়বে এমনটাই আশা এই মৎস্য কর্মকর্তার।





সম্পর্কিত আরও পড়ুন







Leave a reply