ভয়ঙ্করতম ত্রিফলা হয়ে উঠতে পারবেন মেসি-নেইমার-এমবাপ্পে?

|

মেসি-নেইমার-এমবাপ্পেকে নিয়ে গড়া আক্রমণভাগ কাঁপন ধরাতে পারে যেকোনো ডিফেন্স লাইনেই। ছবি: সংগৃহীত

লিগ ওয়ান শুরুর আগেই জল্পনা কল্পনা শুরু হয়ে গেছে, কেমন হতে যাচ্ছে পিএসজির আক্রমণভাগ। প্রতিপক্ষই বা কীভাবে সামলাবেন মেসি-নেইমার-এমবাপ্পেদের নিয়ে গড়া এই ভয়ঙ্কর ত্রয়ীকে? বার্সায় মেসি, নেইমার ও সুয়ারেজ মিলে তৈরি করেছিলেন এক ভীতি জাগানিয়া ত্রিফলা। এবার কি তেমন কিছুই দেখতে যাচ্ছে ফুটবল বিশ্ব?

মেসির সাথে পিএসজির চুক্তি নিশ্চিত হতেই আলোচনার কেন্দ্রবিন্দুতে চলে আসে প্যারিসের ক্লাবটির আক্রমণভাগ। নেইমার, এমবাপ্পের সাথে মেসি; পিএসজির এমন দুর্ধর্ষ অ্যাটাকিং জোন নিয়ে চলছে চুলচেড়া বিশ্লেষণ।

বার্সার কিংবদন্তীতুল্য এমএসএন ছিল আতঙ্কের সংক্ষিপ্ত নাম। প্রথম মৌসুমেই তিনজনে মিলে করেছিলেন ১২২ গোল। পরের মৌসুমে ১৩১। তাদের কল্যাণেই টানা চ্যাম্পিয়ন্স লিগ, ক্লাব বিশ্বকাপ আর দুই বার লা লিগা শিরোপা ঘরে তোলে কাতালান ক্লাবটি।

ত্রয়ীর ইতিহাসে সবচেয়ে ভীতি জাগানিয়া বার্সার এমএসএন। ছবি: সংগৃহীত

একই সময় রিয়াল মাদ্রিদে দেখা গিয়েছিলো বিবিসি ত্রয়ীকে। বেল-বেনজেমা-ক্রিশ্চিয়ানো বেশ ভালোই লড়াই জমিয়ে তুলেছিলেন বার্সেলোনার সাথে। ২০১৪ সালে এই ত্রয়ী গোল করেছিলেন ৯৭টি। প্রথম মৌসুমেই চ্যাম্পিয়ন্স লিগ জিতে তারা দূর করেছিলেন ৪ বছরের অপ্রাপ্তির ক্ষুধা। এরপর টানা ৩ বার চ্যাম্পিয়ন্স লিগ শিরোপা জিতে অনন্য এক রেকর্ড গড়েন বিবিসি ত্রয়ী।

রিয়াল মাদ্রিদের বিবিসি ত্রয়ী। ছবি: সংগৃহীত

শুধু লা লিগায় না, ইংলিশ লিগও দেখেছে দারুণ এক ত্রয়ী। লিভারপুলের সালাহ-ফিরমিনো-সাদিও মানেদের ঝলক দেখা গেছে চ্যাম্পিয়ন্স লিগেও। ক্লপের অধীনে থেকে তারা করেছেন আড়াইশ’রও বেশি গোল।

লিভারপুলের সফল ত্রয়ী সালাহ-মানে-ফিরমিনো। ছবি: সংগৃহীত

তারও আগে ছিলেন রিয়াল মাদ্রিদের আলফ্রেডো ডি স্টেফানো, পুসকাসের সাথে গেন্টোর গড়া ত্রয়ীর কথা। তাদের ওপর ভর করেই ৭০’এর দশকে টানা ৫টি চ্যাম্পিয়ন্স লিগ জিতেছিল লস ব্লাঙ্কোস।

এবার দেখার পালা, কেমন করেন পিএসজি’র ত্রয়ী এমএনএম। ফরাসি লিগ ওয়ানে কীভাবে জ্বলে ওঠেন সেটি দেখার অপেক্ষায় আছে তাদের কোটি কোটি ভক্ত।


সম্পর্কিত আরও পড়ুন





Leave a reply