বেনাপোল স্থলবন্দর দিয়ে ভারতগামীদের সংখ্যা হ্রাসে সরকারের রাজস্ব ঘাটতি প্রায় ৪২ কোটি টাকা

|

বেনাপোল স্থল বন্দরস্থ প্যাসেঞ্জার টার্মিনাল।

বেনাপোল (যশোর) প্রতিনিধি
বেনাপোল স্থলবন্দর দিয়ে গত ২০২০-২১ অর্থবছরে ভারত ভ্রমণকারী যাত্রীর সংখ্যা কমে যাওয়ায় ভ্রমণ কর বাবদ সরকারের ৪১ কোটি ৬৩ লাখ ২৩ হাজার ৫০০ টাকার রাজস্ব ঘাটতি হয়েছে। বেনাপোল স্থলবন্দর থেকে ভ্রমণ কর বাবদ সরকার প্রতি বছরে প্রায় ১০০ কোটি টাকার রাজস্ব আদায় করে।

গত বছরের চেয়ে যাত্রীর সংখ্যা কমেছে ৮ লাখ ৩২ হাজার ৬৪৭ জন। ভ্রমণ খাতে এ সময় রাজস্ব ঘাটতি হয়েছে ৪১ কোটি ৬৩ লাখ ২৩ হাজার ৫০০ টাকা। ভ্রমণে নিষেধাজ্ঞার কারনে চিকিৎসা, পর্যটন ও বাণিজ্যিক খাতে এর বড় ধরণের প্রভাব পড়েছে। তবে স্থলবন্দর কর্তৃপক্ষ বলছেন, গত দেড় বছর ধরে চলমান করোনামহামারির প্রভাব ও বিধি নিষেধে কমেছে ভারতগামী যাত্রী পারাপার।

কাস্টমস সূত্র জানায়, প্রতি বছর বেনাপোল দিয়ে চিকিৎসা, বাণিজ্য, শিক্ষা আর ভ্রমণের উদ্দেশ্যে প্রায় ১৮ লাখ যাত্রী যাতায়াত করে দু’দেশের মধ্যে। বেনাপোল স্থলবন্দর থেকে ভ্রমণ কর বাবদ সরকার বছরে প্রায় ১০০ কোটি টাকা রাজস্ব সংগ্রহ করে।

করোনা সংক্রমণ রোধে গত বছরের ১৩ মার্চ ভারত সরকার ভ্রমণের ওপর নিষেধাজ্ঞা জারি করে। বন্ধ হয়ে যায় বাংলাদেশিদের ভারতে যাতায়াত। পরে পরিস্থিতি কিছুটা স্বাভাবিক হলে গত বছরের ১৫ আগস্ট ভ্রমণ নিষেধাজ্ঞা শিথিল করে স্বল্প পরিসরে মেডিকেল ও বিজনেস ভিসা চালু করে ভারত।

চলতি বছর ভারতে ফের করোনামহামারী আকারে ছড়িয়ে পড়লে ২৩ এপ্রিল বাংলাদেশ সরকার ভারতে ভ্রমণের ওপর নিষেধাজ্ঞা জারি করে। এতে আবারো বন্ধ হয়ে যায় যাত্রী পারাপার। বর্তমানে শর্ত সাপেক্ষে সীমিত পরিসরে মেডিকেল ভিসা চালু রয়েছে শুধু মুমূর্ষু রোগীদের জন্য।

/এসএইচ


সম্পর্কিত আরও পড়ুন





Leave a reply