রাজশাহীতে জাতীয় পরিচয়পত্র বানানোর হিড়িক

|

গত মে থেকে আগস্টে রাজশাহী অঞ্চলে নতুন ভোটার হয়েছেন প্রায় ১৮ হাজার।

করোনার টিকা গ্রহণে জাতীয় পরিচয়পত্র বাধ্যতামূলক হওয়ায় রাজশাহী অঞ্চলের নির্বাচন অফিসগুলোতে বেড়েছে ভিড়। নির্বাচন কমিশন বলছে, টিকা কার্যক্রমকে গুরুত্ব দিয়ে করোনাকালেও স্বল্প সময়ে সর্ব্বোচ সেবা দেয়ার প্রচেষ্টার পাশাপাশি গতিশীল করেছে অনলাইন কার্যক্রম। তবে ভোটার নিবন্ধন, ঠিকানা পরিবর্তন, ভুল সংশোধনের মতো কার্যক্রমে রয়েছে ভোগান্তির অভিযোগ।

মূলত করোনার টিকা নেয়ার জন্যই নতুন ভোটার হতে প্রতিদিনই শত শত মানুষ ভিড় করছেন রাজশাহী আঞ্চলিক নির্বাচন কার্যালয়ে। সেবা প্রত্যাশীদের অভিযোগ চাপ থাকায় পড়তে হচ্ছে ভোগান্তিতে। সময় নিয়ে অপেক্ষা করেও কাজ হচ্ছে না অনেকের।

রাজশাহী আঞ্চলিক নির্বাচন কার্যালয়ের হিসেবে, মে থেকে আগস্টে রাজশাহী অঞ্চলে নতুন ভোটার হয়েছেন প্রায় ১৮ হাজার, ঠিকানা পরিবর্তন করেছেন অন্তত ৪৪ হাজার আর ভুল সংশোধন ও হারানো জাতীয় পরিচয়পত্র নিয়েছেন ৬৫ হাজার ভোটার।

রাজশাহী অঞ্চলের আঞ্চলিক নির্বাচন কর্মকর্তা ফরিদুল ইসলাম জানাচ্ছেন, নিবন্ধনের প্রক্রিয়া শেষ করলে তিন দিনের মধ্যে মোবাইল এসএমএসের মাধ্যমে আইডি নম্বর পাওয়া যাচ্ছে। এই নম্বর দিয়েই ভ্যাক্সিন নিবন্ধনসহ সবকিছু করা সম্ভব।

গত তিন মাসে রাজশাহী বিভাগে সর্বাধিক ৪ হাজার ৮শ ৩০ জন নতুন ভোটার হয়েছে সিরাজগঞ্জ জেলায়, আর বগুড়ায় নতুন ভোটার হয়েছেন ৩ হাজার ৪শ ২২ জন।





সম্পর্কিত আরও পড়ুন







Leave a reply