বেতন ছাড়াও বার্সায় কেন খেলতে পারতেন না মেসি?

|

মেসিকে আটকাতে আদালতে বার্সেলোনার সদস্যরা। ছবি: সংগৃহীত

বিদায় বলাটা সব সময়ই কঠিন। আর সেটি যদি হয় মেসি ও তার সারাজীবনের ক্লাব বার্সেলোনা, তাহলে তো কথাই নেই! অনেকেই দাবী করছেন, মেসি যদি বার্সাকে এতোটাই ভালোবেসে থাকেন তবে ফ্রি তে কেন খেললেন না বার্সায়। এবং বার্সার আর্থিক দৈন্যদশাকে প্রভাবিত না করে মাঠে কেন সাহায্য করলেন না তার ক্লাবকে? এর জবাব দিয়েছেন স্বনামধন্য ফুটবল সাংবাদিক কলিন মিলার। তিনি জানিয়েছেন, ফ্রি তে খেলার ধারণাটা লা লিগার নিয়মের সাথে সম্পূর্ণ সাংঘর্ষিক।

আর্থিক সংকটের কারণে মেসিকে রাখতে পারলো না বার্সেলোনা, এটি জেনে গেছে সবাই। তবে লিওনেল মেসির বিত্ত ও সম্পদের কোনো অভাব না থাকায় অনেকেই বলছেন, বেতন ছাড়াই বার্সায় খেলতে তার সমস্যা কী ছিল! স্প্যানিশ গণমাধ্যম ফুটবল এস্পানা প্রকাশ করেছে কলিন মিলারের টুইট, যেখানে মিলার জানিয়েছেন, লা লিগার সংবিধান অনুসারে এটি অসম্ভব এবং অবৈধ। কারণ, একজন খেলোয়াড়ের সাথে কোনো ক্লাব চুক্তিবদ্ধ হতে গেলে সেই খেলোয়াড়ের বেতন হতে হয় তার আগের চুক্তির বেতনের নূন্যতম ৫০ শতাংশ। এই নিয়মটি করা হয়েছিল যাতে ক্লাবগুলো আর্থিক ব্যাপারে খেলোয়াড়দের সাথে কোনো সমস্যার সৃষ্টি করতে না পারে। মিলার তার টুইটের সাথে স্প্যানিশ ফুটবলের চুক্তিসংক্রান্ত ওয়েবসাইটের লিংকও দিয়েছেন।

ফুটবল সাংবাদিক কলিন মিলারের টুইট, যেখানে তিনি দেখিয়েছেন কেন মেসি চাইলেও ফ্রি তে বার্সায় খেলতে পারতেন না। ছবি: ফুটবল এস্পানা

তাছাড়া বার্সা সভাপতি হুয়ান লাপোর্তার কথাতেই এটি স্পষ্ট ছিল যে, মেসি তার বেতন অর্ধেকে নামিয়ে আনলেও বার্সা তাকে দলে রাখতে পারবে না। কারণ বার্সার আয় এবং বেতনের অনুপাত বর্তমানে ১১৫%। মেসির বেতন অর্ধেক কমালে সেটি হতো ৯৫%। আর লা লিগার নিয়মানুযায়ী, এই অনুপাত হতে পারবে সর্বোচ্চ ৭০%।

অন্যদিকে, একের পর এক ফ্লপ সাইনিং এবং অফ ফর্মে থাকা খেলোয়াড়দের অন্য কোনো ক্লাবে বিক্রি বা লোনে পাঠাতে পারেনি বার্সা। তাই বার্সেলোনা এবং মেসির সম্পর্ক ছিন্ন করা ছাড়া এই দুই পক্ষের আর কিছুই করার উপায় ছিল না।





সম্পর্কিত আরও পড়ুন







Leave a reply