পিস্তল ঠেকিয়ে চাঁদাবাজির ভিডিও ভাইরাল, আটক ১

|

কুমিল্লায় এক পল্লি চিকিৎসকের কাছ থেকে চাঁদা নেয়ার ভিডিও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভাইরাল হয়েছে। চেম্বারে গিয়ে রীতিমতো রিভলবার ঠেকিয়ে ৩৯ হাজার টাকা হাতিয়ে নেয়ার অভিযোগ উঠেছে শাহরিয়ার সাগর নামের এক সন্ত্রাসীর বিরুদ্ধে। তবে শেষ পর্যন্ত পুলিশ তাকে গ্রেফতার করে অস্ত্রটি উদ্ধার করেছে।

রোববার (৮ আগস্ট) অভিযুক্ত শাহরিয়ার সাগর পিস্তল ঠেকিয়ে পল্লি চিকিৎসক শামসুল হুদার কাছ থেকে চাঁদা নেয়। চাঁদাবাজির সিসিটিভি ফুটেজ ছড়িয়ে পড়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে।

ফুটেজে দেখা যায়, টাকা গুনে পকেটে ঢোকানোর পর সাগর পিস্তল কক করে শামসুল হুদার দিকে তাক করে। এরপর তাকে কিছু বলতে দেখা যায়। কথা বলার সময় সে পিস্তলের ট্রিগারে হাত রেখে ভুক্তভোগী চিকিৎসকের দিকে তাক করে রাখে। পরে পিস্তলটি আবার প্যান্টের পেছনের দিকের পকেটে নিয়ে চলে যায়।

পল্লি চিকিৎসক শামসুল হুদার অভিযোগ, তিনি এর আগেও একাধিকবার চাঁদা দিয়েছেন শাহরিয়ার সাগরকে। সম্প্রতি সে আবারও টাকা নিতে আসে। বিষয়টি স্থানীয় চেয়ারম্যানকে জানালে সাগর ক্ষিপ্ত হয়। তারই জেরে রোববার রাতে অস্ত্র ঠেকিয়ে নিয়ে যায় ৩৯ হাজার টাকা। আরও দুই লাখ টাকা প্রস্তুত রাখতে বলে হুমকিও দিয়ে যায় সে।

ঘটনার পরে ফেসবুক লাইভে নিজের এবং পরিবারের নিরাপত্তা নিয়ে শঙ্কা প্রকাশ করেন শামসুল হুদা। তিনি ফেসবুক লাইভে বলেন, আমি লুকিয়ে আছি। খুব ঝামেলার মধ্যে পড়ে আছি। আমার পরিবারের সাথে কোনোভাবেই যোগাযোগ করতে পারছি না। তিনি বলেন, দয়া করে আপনারা আমাকে সাহায্য করুন। এছাড়াও লাইভে তিনি বলেন, কেউ পারলে যেন তাকে পুলিশ বা সংশ্লিষ্ট শৃঙ্খলাবাহিনীর ফোন নাম্বার দেয়। তিনি ৯৯৯ এ ফোন করেছিলেন বলেও জানান। তিনি বলেন, আমি খুবই ঝুঁকির মধ্যে আছি, যেখানে লুকিয়ে আছি, বের হলেই তাদের লোকজন আমাকে ধরে ফেলবে। এছাড়াও লাইভে তিনি জানান, সন্ত্রাসীরা তাকে ক্রমাগত হুমকি দিয়ে যাচ্ছে। তারা বলেছে, মিডিয়া বা ফেসবুকে প্রচার করায় তার পরিবারের ক্ষতি করবে।

থানায় অভিযোগ দিলে সোমবার সকালে অভিযুক্ত শাহরিয়ার সাগরকে রাজধানী থেকে গ্রেফতার করে পুলিশ। জানিয়েছে, সাগরের নামে ইতোমধ্যে অস্ত্র ও মাদকের আটটি মামলা রয়েছে।





সম্পর্কিত আরও পড়ুন







Leave a reply