দু’দলের জন্যই পরাজয় থেকে শেখার সিরিজ

|

টি-২০ বিশ্বকাপের প্রস্তুতির জন্য ভুল থেকে শেখার কথা জানালেন টাইগার ও অজি খেলোয়াড়।

পাঁচ ম্যাচ টি-২০ সিরিজের শেষে ম্যাচে কাল মুখোমুখি হবে বাংলাদেশ ও অস্ট্রেলিয়া। মিরপুর স্টেডিয়ামে ম্যাচটি শুরু হবে সন্ধ্যা ৬টায়। এরই মধ্যে প্রথম তিন ম্যাচ জিতে টাইগাররা সিরিজ জয় নিশ্চিত করে ফেলায় আর অজিরা হোয়াইটওয়াশ এড়াতে পারায় এই ম্যাচটি এখন কেবল আনুষ্ঠানিকতা এবং টি-২০ বিশ্বকাপের প্রস্তুতি ম্যাচ হয়ে দাঁড়িয়েছে। গ্রোয়েন ইনজুরির কারণে এই ম্যাচ নাও খেলতে পারেন সাকিব আল হাসান।

বিদায় বেলায় লিওনেল মেসি শুধু ৩৫ ট্রফি জয়ের কথাই বলেননি, বলেছেন হেরে যাওয়া ম্যাচগুলোর কথা। পরাজয় তাকে শিখিয়েছে ফিরে আসতে, তৈরি হতে।

শুধু মেসি নয়, কথাগুলো যে কোনো পেশাদার দল কিংবা খেলোয়াড়ের জন্যই প্রযোজ্য। অস্ট্রেলিয়াও যেন সেই পথেরই পথিক। হ্যাটট্রিক পরাজয়ের পর ঘুড়ে দাঁড়িয়েছে চতুর্থ ম্যাচে। শুধু জয় নয়, মন্থর স্পিনিং উইকেটে কীভাবে বল করতে হয়, ব্যাটসম্যানদের লড়তে হয় সেই শেখাটাও ছিল স্পষ্ট। আপাতত হোয়াইটওয়াশ এড়ানো অজিরা তাই কৌশলী হতে চায় শেষ ম্যাচেও।

অস্ট্রেলিয়ার স্পিনার মিচেল সোয়েপসন বলেছেন, শেষ ম্যাচে আমাদের কৌশল কাজে লেগেছে। স্পিনাররা প্রায় ১২ ওভার বল করেছে। আমিও হয়তো আমার জন্য সেরা উইকেটেই বল করেছি। প্রতি ম্যাচেই শিখছি আমরা।

অস্ট্রেলিয়ায় লেগ স্পিনার মিচেল সোয়েপসন।

৭ দিনের ব্যবধানে হচ্ছে ৫টি ম্যাচ। তাই শেষ ম্যাচের আগের দিন ছুটিতেই ছিল দু’দল। ব্যাট বলের অনুশীলন না হলেও রণকৌশল নিয়ে চলেছে বিশ্লেষণ। নিশ্চিতভাবে সেই তালিকায় সবার উপরে ছিলেন সৌম্য সরকার। চার ম্যাচে ব্যর্থ এই ওপেনার কি একাদশে থাকবেন নাকি ব্যাটিং অর্ডারে আসবে পরিবর্তন? সেই উত্তর ধোঁয়াশায় থাকলেও পরীক্ষার মঞ্চ হতেই পারে শেষ ম্যাচ।

বাংলাদেশের পেসার শরিফুল ইসলাম বলেন, এই পিচে জোরে বল না করে কাটার ও স্লোয়ার দিলে ভালো ফল পাওয়া যাবে এটা ভেবেই আমরা বল করেছি। আগামীতেও উইকেট বুঝে বল করার চেষ্টা করবো আমরা।

যমুনা টিভির সাথে আলাপচারিতায় জাতীয় দলের পেসার শরিফুল ইসলাম।

মন্থর আর ব্যাটসম্যানদের জন্য সংগ্রামের এই উইকেটে কি বিশ্বকাপের প্রস্তুতি সম্ভব? এই নিয়ে চলছে চরম বিতর্ক। তবে জিততে থাকা একটা দলের ঝুলিতে থাকা আত্মবিশ্বাস যে বড় প্রাপ্তি হবে সাকিব-রিয়াদদের সেটা বলাই যায়।





সম্পর্কিত আরও পড়ুন







Leave a reply