হেলেনা-পরীমণিদের বাসায় গেল সিআইডির টিম

|

হেলেনা জাহাঙ্গীর ও পরীমণি।

আওয়ামী লীগের উপকমিটি থেকে বহিষ্কারের পর গ্রেফতার হওয়া হেলেনা জাহাঙ্গীর, আলোচিত চিত্রনায়িকা পরীমণিসহ বিভিন্ন অভিযোগে সম্প্রতি গ্রেফতার হওয়া ছয়জনের বাসা পরিদর্শন করেছে পুলিশের অপরাধ ও তদন্ত বিভাগ (সিআইডি)। শনিবার বেলা তিনটা থেকে রাজধানীর বিভিন্ন এলাকায় তথ্য, উপাত্ত ও আলামত সংগ্রহের জন্য এই অভিযান চালানো হয়।

সিআইডি সূত্র জানিয়েছে, বিভিন্ন আলামত সংগ্রহের জন্য হেলেনা জাহাঙ্গীরের বাসা পরিদর্শনের পর পরীমণি, প্রযোজক রাজ, কথিত মডেল ফারিয়া মাহাবুব পিয়াসা, মরিয়ম আক্তার ও শরফুল হাসানের বাসায় যায় তাদের টিম। সাড়ে চার ঘণ্টা ধরে সিআইডির এই তল্লাশি ও আলামত সংগ্রহের প্রক্রিয়া চলে। প্রত্যেকের বাসা থেকে ল্যাপটপ, মোবাইলসহ বিভিন্ন আলামত জব্দ করা হয়েছে। এগুলোর ফরেনসিক পরীক্ষা করা হবে।

হেলেনা জাহাঙ্গীর, পরীমণি, রাজ, ফারিয়া ও মরিয়ম সিআইডির হেফাজতে আছেন। তাদের বিরুদ্ধে মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইন, বন্য প্রাণী (সংরক্ষণ ও নিরাপত্তা) আইন ও ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে করা পৃথক সাতটি মামলা তদন্ত করছে সংস্থাটি। এর আগে, শুক্রবার ঢাকা মহানগর পুলিশের (ডিএমপি) গোয়েন্দা শাখা (ডিবি) আসামি ও মামলার নথিপত্র সিআইডির কাছে হস্তান্তর করে।

উল্লেখ্য, চাকরিজীবী লীগ নামের ভুঁইফোড় সংগঠন খুলে সম্প্রতি আওয়ামী লীগের উপকমিটি থেকে বহিষ্কৃত হন নানা কারণে বিতর্কিত হেলেনা জাহাঙ্গীর। এর গত ২৯ জুলাই রাতে হেলেনা জাহাঙ্গীরের গুলশানের বাড়িতে অভিযান চালিয়ে তাকে আটক করে র‍্যাব। তার বাসা থেকে বিদেশি মদ, বিদেশি মুদ্রা, হরিণের চামড়া, ওয়াকিটকি সেট উদ্ধার করা হয়। এরপর গত রোববার (১ আগস্ট) রাজধানীর বারিধারা ও মোহাম্মদপুর থেকে মাদকসহ গ্রেফতার হন কথিত মডেল ফারিয়া মাহবুব পিয়াসা ও মরিয়ম আক্তার মৌ। এরপর রাজধানীর বসুন্ধরা এলাকা থেকে মাদক, অস্ত্রসহ গ্রেফতার হন শরফুল হাসান ও মাসুদুল ইসলাম ওরফে জিসান।

নানা নাটকীয়তার মধ্যে গত বুধবার (৪ আগস্ট) সন্ধ্যায় রাজধানীর বনানীতে নিজ বাসা থেকে মাদকসহ গ্রেফতার করা হয় আলোচিত-সমালোচিত চিত্রনায়িকা পরীমণিকে। এর পরপরই বনানীর নিজ কার্যালয় থেকে গ্রেফতার করা হয় প্রযোজক রাজকেও। সবশেষ, শুক্রবার জিজ্ঞাসাবাদের জন্য নির্মাতা চয়নিকা চৌধুরীকে আটক করে মহানগর গোয়েন্দা পুলিশ। পরে রাতে তাকে পরিবারের জিম্মায় ছেড়ে দেয়া হয়।





সম্পর্কিত আরও পড়ুন







Leave a reply