যে কারণে বার্সায় থাকা হলো না মেসির

|

লিওনেল মেসি।

নানা নাটকীয়তা, গুঞ্জনের মধ্য দিয়ে সমাপ্তি ঘটলো একটি গভীর সম্পর্কের। প্রিয় ক্লাব বার্সেলোনার সাথে আর চুক্তি নবায়ন করা হলো না বর্তমান বিশ্বের সেরা ফুটবলার লিওনেল মেসির। বার্সেলোনা তাদের অফিসিয়াল বিবৃতিতে বিবৃতিতে জানিয়ে দিয়েছে, ক্লাবের ইতিহাসের সেরা খেলোয়াড় মেসি আর থাকছেন না তাদের সাথে। দুই পক্ষই চুক্তি সম্পাদনের ব্যাপারে তাদের আগ্রহী থাকলেও আর্থিক ও কাঠামোগত কিছু প্রতিবন্ধকতার কারণে সেটি আর সম্ভব হচ্ছে না।

কিন্তু কেনো বার্সায় থাকা হলো না এলএম টেনের? স্প্যানিশ দৈনিক মার্কা বলছে, পরিস্থিতি এমন দাঁড়িয়েছে যে মেসির বার্সেলোনায় থাকাটা প্রায় অসম্ভব হয়ে পড়েছিল। ক্রীড়াখাতে বিনিয়োগকারী প্রতিষ্ঠান সিভিসিকে নিয়ে লা লিগা যে প্রস্তাব দিয়েছে বার্সেলোনাকে, তা বার্সেলোনার পক্ষে মেনে নেওয়া অসম্ভব। এ বাস্তবতায় ভবিষ্যতে সুপার লিগ হওয়াও রীতিমতো অসম্ভব হয়ে পড়বে।

যুক্তরাষ্ট্রভিত্তিক লগ্নিকারক প্রতিষ্ঠান সিভিসির সঙ্গে লা লিগার চুক্তির ফলে বার্সেলোনা পেতে পারত ২৭ কোটি ইউরোর মতো অর্থ। কিন্তু সেক্ষেত্রে ভবিষ্যতে সুপার লিগ আয়োজনের ভাবনা থেকে সরে আসতে হবে তাদের।

মার্কা আরও জানিয়েছে, লা লিগার এমন শর্তই মূলত বার্সেলোনাকে ঝামেলায় ফেলে দিয়েছে। মেসি না সুপার লিগ- এমন এক কঠিন পরিস্থিতিতে পড়েছে তারা। সুপার লিগের কথা ভেবে সিভিসির সঙ্গে সে চুক্তি নাকচ করলে বড় অঙ্কের অর্থ থেকে বঞ্চিত হবে বার্সা। এ অবস্থায় মেসিকে দলে রাখলে আর্থিক চাপ আরও বেড়ে যাবে তাদের।  

মেসির সাথে চুক্তি করতে আরও সমস্যা আছে। লিগের নতুন নিয়মের কারণেও বিপদে পড়েছে তারা। করোনা মহামারিতে ক্লাবগুলোর আর্থিক পরিস্থিতি যেন আরও খারাপ না হয় সেজন্য দলগুলোর আয়ের সাথে সঙ্গতি রেখে খেলোয়াড়দের মোট বেতনের জন্য নির্দিষ্ট একটা অঙ্ক নির্ধারণ করে দিয়েছে লা লিগা। যেটি বার্ষিক ২০০ মিলিয়ন ইউরোর কাছাকাছি। বার্সেলোনার খেলোয়াড়দের বেতন বাবদ খরচ হয় তার দ্বিগুণের কাছাকাছি। সেজন্যই মেসি অর্ধেক বেতন কমিয়ে থেকে যাওয়ায় সম্মত হয়েছিলেন। কিন্তু পরিস্থিতি কঠিন করেছেন বার্সেলোনার অন্য খেলোয়াড়রা। মেসির মতো বার্সার ‘পঞ্চপাণ্ডব’ খ্যাত জেরার্ড পিকে, সার্জিও বুস্কেটস, জর্দি আলবা, মার্ক আন্দ্রে টের স্টেগেন, আর সার্জি রবার্তো সবাই বেতন কমাতে সম্মত হলেও বাকি খেলোয়াড়রা তাতে সায় দেননি। লিগের বেঁধে দেওয়া সীমা ধরে রাখতে ক্লাবের আবেগের সাথে জড়িয়ে থাকা মেসিকেই বিসর্জন দিতে হলো বার্সার।







সম্পর্কিত আরও পড়ুন







Leave a reply