‘মিয়ানমার আন্তর্জাতিক আইন লঙ্ঘন করে সীমান্তে সেনা সমাবেশ করছে’

|

বেনাপোল প্রতিনিধি
বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ (বিজিবি) মহা পরিচালক মেজর জেনারেল আবুল হোসেন বলেছেন, মিয়ানমার আন্তর্জাতিক আইন লঙ্ঘন করে সীমান্তের জিরো পয়েন্টে সেনা সমাবেশ করছেন। আমরা পতাকা বৈঠক করে তাদেরকে জানিয়েছে আন্তর্জাতিক আইন লঙ্ঘন করে আমাদেরকে না জানিয়ে সীমান্তে সেনা সমাবেশ করতে পারে না। সীমান্তে গোলাগুলিও করতে পারে না। এ বিষয়গুলো নিয়ে অবশ্যই সতর্ক থাকবে হবে।

শুক্রবার রাত ৮ টার দিকে যশোরের শার্শা উপজেলার শালকোনায় কম্পোজিট বিওপি(খলার মাঠও অডিটোরিয়াম) উদ্ভোধন ও ক্যাম্প পরিদর্শন শেষে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে তিনি এসব কথা বলেন।

তিনি আরও বলেন, বাংলাদেশ ২০৪১ সালে উন্নত সমৃদ্ধশালী দেশে রুপান্তরিত হবে। সেই দেশের সীমান্তরক্ষা বাহিনী যেমন হওয়া উচিত সে আদলে আমরা বিজিবিকে সাজাচ্ছি। আমরা সীমান্তে সবসময় সতর্ক অবস্থায় থাকি। ডিজিটাল বাংলাদেশের আদলে আমাদের বর্ডার সুরক্ষার জন্য সার্ভিলেন্স সিষ্টেম এবং স্মার্ট বর্ডার ম্যানেজমেন্ট ব্যবস্থা করছি। সীমান্তে সিসি ক্যামেরা, সার্চ লাইট ও ড্রোন ব্যবহার করা হবে। অচিরেই সীমান্ত সড়ক তৈরী করা হবে বলে জানান তিনি।

দক্ষিণ পশ্চিম অঞ্চলের রিজিয়ন কমান্ডার ব্রিগেডিয়ার খালিদ আল মানুন বলেন, মিয়ানমার সীমান্তে সেনা সমাবেশ করেছে তবে যেকোন পরিস্থিতি মোকাবেলা করতে আমরা প্রস্তুত আছি।

পরে বিজিবি অডিটোরিয়ামে সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়। এসময় মহা পরিচালকের সাথে উপস্থিত ছিলেন উপ-পরিচালক ব্রিগেডিয়ার আনিছুর রহমান, দক্ষিণ-পশ্চিম অঞ্চলের রিজিয়ন কমান্ডার ব্রিগেডিয়ার খালিদ আল মানুন, সেক্টর কমান্ডার কর্নেল তৌহিদুল ইসলাম ও ৪৯ বিজিবি’র কমান্ডিং অফিসার লেঃ কর্নেল আরিফুল হক।





সম্পর্কিত আরও পড়ুন







Leave a reply