বনানী থানায় নেয়া হয়েছে পরীমণিকে, হতে পারে একাধিক মামলা

|

র‍্যাবের সদর দফতর থেকে বনানী থানায় নেয়া হয়েছে নায়িকা পরীমণিকে।

র‍্যাব সদর দফতর থেকে চিত্র নায়িকা পরীমণিকে নেয়া হয়েছে বনানী থানায়। সেখানে তার বিরুদ্ধে একটি মাদক মামলা করা হবে বলে জানা গেছে। এছাড়া সোশ্যাল মিডিয়ার অপব্যবহারের অভিযোগে ডিজিটাল সিকিউরিটি অ্যাক্টের অধীনেও আরেকটি মামলা হতে পারে পরীমণির বিরুদ্ধে।

গতকাল বুধবার (৪ আগস্ট) পরীমণির বনানীর বাসায় সুনির্দিষ্ট অভিযোগের ভিত্তিতে অভিযান চালায় র‍্যাব। অভিযানে পরীমণির বাসা থেকে জব্দ হয়েছে বিপুল পরিমাণ বিদেশী মদ, ইয়াবা, আইস, এসএলডিসহ মদ খাওয়ার সরঞ্জাম। এরপর অভিযান শেষে পরিমণিকে নেয়া হয় র‍্যাব সদরদফতরে।

আজ বৃহস্পতিবার (৫ আগস্ট) র‍্যাবের সদর দপ্তর থেকে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে র‍্যাবের লিগ্যাল অ্যান্ড মিডিয়া উইংয়ের পরিচালক কমান্ডার খন্দকার আল মঈন জানান, চিত্রনায়িকা পরীমণি ২০১৬ সাল থেকে অ্যালকোহলে আসক্ত হয়ে পড়েন। তার ফ্ল্যাট থেকে বিভিন্ন বিদেশি ব্রান্ডের মদ উদ্ধার করা হয়। তিনি নিয়মিত অ্যালকোহল সেবন করতেন। মাত্রাতিরিক্ত মাদকসেবনের জন্যই তিনি নিজের বাসায় একটি মিনিবার স্থাপন করেন। পরীমণি নিজের বারে বিভিন্ন সময় ডিজে পার্টির ব্যবস্থা করতেন। তার এই পার্টিতে নজরুল ইসলাম ওরফে রাজসহ বিভিন্ন লোকের যাতায়াত ছিল। পরীমণির এই মিনিবারে অ্যালকোহল সাপ্লাই দিতো এবং বিভিন্নভাবে সহযোগিতা করতো নজরুল ইসলাম রাজ।

খন্দকার আল মঈন বলেন, পরীমণির বারের পার্টিতে ১৫-২০ জন অংশগ্রহণ করতো। অংশগ্রহণকারীদের কাছ থেকে তারা বিপুল পরিমাণ অর্থ সংগ্রহ করা হতো। পার্টিতে অংশগ্রহণকারীদের নিয়ে মাঝে মাঝে বিদেশে প্লেজার ট্রিপেও নিয়ে যাওয়া হতো।

/এসএইচ





সম্পর্কিত আরও পড়ুন







Leave a reply