আগে দরিদ্র দেশে টিকা পাঠাও, এরপর বুস্টার ডোজ: বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা

|

ডব্লিউএইচও মহাপরিচালক তেদ্রোস আধানম। ছবি: সংগৃহীত

দরিদ্র দেশে করোনা টিকা সরবরাহ নিশ্চিতে আবারও বুস্টার ডোজ প্রয়োগ বন্ধের আহ্বান জানিয়েছে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা। অন্তত সেপ্টেম্বর পর্যন্ত ৩য় ডোজ প্রয়োগ স্থগিত রাখা উচিত বলে জানান ডব্লিউএইচও প্রধান তেদ্রোস আধানম।

বুধবার সংবাদ সম্মেলনে বলেন, এতে প্রতিটি দেশের কমপক্ষে ১০ শতাংশ মানুষ টিকা পাওয়ার সুযোগ পাবে। ধনী দেশগুলোর অনেকেই করোনা টিকার বুস্টার ডোজ প্রয়োগের সিদ্ধান্ত নিয়েছে। ইসরায়েলে এরই মধ্যে ষাটোর্ধদের ৩য় ডোজ টিকা দেয়া শুরু হয়েছে। আরও ২০ কোটি ডোজ ভ্যাকসিন ক্রয়ে গত জুলাইয়ে ফাইজার-বায়োএনটেকের সাথে চুক্তি করে যুক্তরাষ্ট্র। জার্মানিও বুস্টার ডোজ প্রয়োগের সিদ্ধান্ত জানায় গত মঙ্গলবার।

ডব্লিউএইচও মহাপরিচালক তেদ্রোস আধানম বলেন, এটা গ্রহণযোগ্য নয় যে, যারা সর্বোচ্চ টিকা পেয়েছে, তারাই আরও টিকা সংগ্রহ করবে। যেখানে বিশ্বের সবচেয়ে নাজুক জনগোষ্ঠীই সুরক্ষিত নয়। বৈশ্বিক মহামারি মোকাবেলায় বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার লক্ষ্য পূরণে প্রধান দায়িত্ব নিতে হবে জি-টোয়েন্টি দেশগুলোকেই। কোভ্যাক্স কর্মসূচিকে গুরুত্ব দিতে হবে।

ডব্লিউএইচও’র তথ্য অনুযায়ী, এ পর্যন্ত স্বল্প আয়ের দেশে প্রতি ১০০ জন মানুষের জন্য বরাদ্দ হয়েছে ১ দশমিক ৫ ডোজ টিকা। হাইতি ও কঙ্গোর মতো দেশে কোনো নাগরিকই পায়নি ২ ডোজ টিকা।





সম্পর্কিত আরও পড়ুন







Leave a reply