প্রতিপক্ষকে ফাঁসাতেই ভাইবোনের গায়ে অ্যাসিড নিক্ষেপ

|

পটুয়াখালী প্রতিনিধি:

পটুয়াখালী সদর উপজেলার মাদারবুনিয়া ইউনিয়নের চালিতাবুনিয়া গ্রামে ঘুমন্ত অবস্থায় ভাই-বোনের শরীর অ্যাসিড দিয়ে ঝলসে দিয়ে প্রতিপক্ষকে ফাঁসানোর ষড়যন্ত্র করেছিল ভুক্তভোগী ভাইবোনের চাচাত ভাই এনায়েত গাজী। সোমবার দিবাগত রাতে ঘটা এই ঘটনায় অভিযুক্ত এনায়েত গাজীকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

সদর থানার ওসি আখতার মোর্শেদ জানান, অভিযুক্তের পরিকল্পনা ছিল অ্যাসিড নিক্ষেপের পর ঘটনাটি প্রতিপক্ষের ওপর চাপিয়ে দিয়ে পার পেয়ে যাবে। কিন্তু তার আগেই পুলিশের হাতে গ্রেফতার হলেন চাচাত ভাই এনায়েত গাজী। প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে পুলিশের কাছে এমন বক্তব্য দিয়েছেন এনায়েত গাজী।

তিনি জানান, বুধবার (৪ আগস্ট) বিকালে সদর থানা পুলিশের একটি দল এসিড নিক্ষেপকারী এনায়েত গাজীকে সদর উপজেলার ফতুল্লা বাজার থেকে গ্রেফতার করে। এর আগে ভিকটিমের খালা রাবেয়া বেগম বাদী হয়ে সদর থানায় অ্যাসিড অপরাধ দমন আইনে এনায়েত গাজীকে আসামি করে একটি মামলা দায়ের করেন।

এদিকে অ্যাসিডে ঝলসে যাওয়া সুমাইয়া আক্তার (১৬) ও তার ছোটভাই মোহাম্মদ আলী (১২) মুমূর্ষু অবস্থায় বরিশাল শের-ই-বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন আছেন।

পটুয়াখালীর অতিরিক্ত পুলিশ সুপার আর বলেন, আটককৃত ব্যক্তি প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে ভাইবোনকে অ্যাসিড মারার কথা স্বীকার করেছে। প্রতিবেশির সাথে তার শত্রুতার জেরে তাদেরকে হেনস্তা করতেই এই পরিকল্পনা করেছিল বলে জানিয়েছে এনায়েত গাজী।

অ্যাসিড নিক্ষেপের ঘটনার বিস্তারিত জানুন এখানে।





সম্পর্কিত আরও পড়ুন







Leave a reply