চেয়েছিলেন ডট বল, পেয়েছেন উইকেট

|

অস্ট্রেলিয়াকে যথেষ্ট ভুগিয়েছেন আজ নাসুম। মিচেল মার্শকে আউট করার পর তাকে ঘিরে সতীর্থদের উল্লাস। ছবি: ক্রিকইনফো

বোর্ডে ছিল মাত্র ১৩১ রান। তাই পরিকল্পনা ছিল ডট বল করার। তাই করতে গিয়েই পেয়ে গেছেন উইকেট। ম্যাচ শেষে ম্যাচ সেরার পুরস্কার নিতে গিয়ে জানালেন টাইগারদের ক্যাঙ্গারু বধের নায়ক নাসুম আহমেদ।

এর আগে আন্তর্জাতিক টি-টোয়েন্টিতে মাত্র ২ উইকেট ছিল নাসুমের। আর আজই তিনি নিয়েছেন ৪ উইকেট। ক্যারিয়ার সেরা বোলিংয়ের জন্য অস্ট্রেলিয়াকেই বেছে নেন নাসুম। ওপেনার জশ ফিলিপে, ইনফর্ম মিচেল মার্শ, অধিনায়ক ম্যাথু ওয়েড ও অলরাউন্ডার অ্যাস্টন অ্যাগারের উইকেট নেন নাসুম। উইকেট টু উইকেট বল করে রান দেয়ায় যথেষ্ট কার্পণ্য করেছিলেন বলেই উইকেটগুলো এসেছে, জানালেন এই তরুণ স্পিনার।

টার্গেট খুবই ছোট। টি-টোয়েন্টির বাস্তবতায় ১৩২ রান তেমন কোনো রানই না। শক্তিশালী অস্ট্রেলিয়ার জন্য তাই ম্যাচের অর্ধেক যাওয়ার পরই ম্যাচ জয়ের সম্ভাবনা বেড়ে যায় বহুগুণ। কিন্তু সে পর্যন্তই! স্পিনে যে এতোটা নাকানিচুবানি খাবে তারা তা কে ভাবতে পেরেছিল!

নাসুমের সাথে সাকিব আল হাসান এবং মেহেদি হাসানও অজি বধে অংশ নিলে ভেঙে পড়ে অস্ট্রেলিয়ার টপ ও মিডল অর্ডার। টপ অর্ডারকে তো পাওয়াই যায়নি আজ। প্রতি ওভারে একজন করে আউট হবার ধারা বজায় রেখে তৃতীয় ওভারেই মিডল অর্ডার অনাবৃত করে ফেলে অজিরা।

তিন স্পিনারের ১২ ওভারে ৬৫ রানে পড়েছে ৬টি উইকেট। অজিরা মূলত এখানেই হেরে যায়। সাথে দুই পেসার মোস্তাফিজ ও শরিফুল ইসলামও যথাক্রমে ১৬ ও ১৯ রানে নেন দুটি করে উইকেট। দুই পেসারই তাদের উইকেটগুলো পান স্লোয়ার ডেলিভারিতে। অর্থাৎ, পরিকল্পনা কাজে লেগেছে ভালোভাবেই।





সম্পর্কিত আরও পড়ুন







Leave a reply