মুন্সিগঞ্জে বানের স্রোতে ভেঙে যাওয়া সেতু মেরামত হয়নি ১ বছরেও

|

নির্মাণের দুই মাস না যেতেই বানের স্রোতে ভেঙে পড়ে সেতুটি।

গত বছরের এপ্রিলে মুন্সিগঞ্জের টঙ্গীবাড়ীতে নগরজোয়ার খালের উপর একটি সেতু নির্মিত হয়। কিন্তু নির্মাণের দুই মাস না যেতেই বানের স্রোতে ভেঙে পড়ে সেতুটি। ভেঙে পড়ার এক বছর পার হলেও সেতুটি মেরামতের কোনো উদ্যোগ নেয়নি প্রশাসন।

সেতু ভেঙে যাওয়ায় বর্ষায় দুর্ভোগ পোহাতে হচ্ছে মুন্সীগঞ্জের টঙ্গীবাড়ি উপজেলার ১৫ গ্রামের মানুষকে। সেতুটি সড়কপথে যোগাযোগের প্রধান মাধ্যম, তাই রোগী আনা নেয়া বা গ্রামীণ অর্থনৈতিক কর্মকাণ্ড চরম বিঘ্নিত হচ্ছে।

বছর না ঘুরতেই সেতু ভেঙে যাওয়ায় হতবাক স্থানীয়রা। স্থানীয় কয়েকজন জানান, এটিই তাদের যাতায়াতের একমাত্র রাস্তা। সেতু ভেঙে যাওয়ায় ট্রলার ছাড়া এখন আর যাতায়াতের কোনো উপায় নেই। কাজ হারিয়ে বেকার হয়েছেন স্থানীয় ছোট যানবাহন চালকেরাও। সেতুটি নতুন করে নির্মাণের দাবি জানিয়েছেন স্থানীয়রা।

উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন অফিস বলছে, স্থানীয় সংসদ সদস্য ও উপজেলা পরিষদের সুপারিশেই নির্মাণ হয়েছিলো সেতুটি।

হাসাইল-বানারী ইউনিয়ন পরিষদের ইউপি সদস্য কুদ্দুস মুন্সী বলেন, গ্রামের সাধারণ মানুষেরা আমাদের গালিগালাজ করে আমরা কেনো সেতু মেরামতের উদ্যোগ নেই না। কিন্তু সেতু নির্মাণ বা মেরামতের কাজ তো আমাদের ইউনিয়ন পরিষদের মাধ্যমে হয় না।

হাসাইল-বানারী ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আনোয়ার হোসেন হালদার বলেন, পরিষদের তরফ থেকে আমরা আন্তরিক এবং কিছু টাকাও দিয়েছিলাম কিন্তু সেতুটি সংস্কার হয়নি।

নিম্নমানের কাজের অভিযোগের বিষয়ে জানতে চাইলে ক্যামেরায় কথা বলতে রাজি হননি উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা। আর প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা দায় সেরেছেন ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষকে জানিয়ে।

মুন্সিগঞ্জের টঙ্গীবাড়ি ও লৌহজং উপজেলার প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা সাজেদা সরকার বলেন, এই বিষয়টি আমি বলতে পারছি না। আমি অফিসে থাকলে বলতে পারতাম কোনো উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে কিনা।

/এস এন





সম্পর্কিত আরও পড়ুন







Leave a reply