বাংলাদেশ নয়, অস্ট্রেলিয়ার ভাবনা জুড়ে শুধুই বিশ্বকাপ

|

সংবাদ সম্মেলনে অস্ট্রেলীয় অধিনায়ক ম্যাথু ওয়েড।

প্রতিপক্ষ বাংলাদেশ নয়, অস্ট্রেলিয়ার ভাবনা জুড়ে শুধুই বিশ্বকাপ। তাই তো প্রথা ভেঙে ম্যাচের আগের দিন অধিনায়কত্ব পেয়েও নির্ভার ম্যাথু ওয়েড। সিরিজ জয়ের লক্ষ্য থাকলেও দলটির ফোকাস নিজেদের গুছিয়ে নেয়া।

অজি দল মাঠে থাকা অবস্থায় কারো মাঠে ঢোকা নিষিদ্ধ। এমন অবস্থায় উইকেট দেখতে এলেন অস্ট্রেলিয়ার ক্রিকেটাররা। পিপিই পরা গ্রাউন্ডসম্যানরা দৌড়ে পালালেন। এসব দেখে বাড়াবাড়ি মনে হতে পারে। কিন্তু অজিরা বরাবরই নিয়ম মানতে অভ্যস্ত। মজার বিষয় হচ্ছে, ক্রিকেটারদের এই বায়ো বাবল নিয়ে মাথাব্যথাও নেই। যার দায়িত্ব সেই প্রটোকল অফিসারই দেখছেন সব।

সকাল ১০ টার আগেই সংবাদ সম্মেলন শেষ করে মাঠে হাজির হয়েছিলেন এই সিরিজে অজিদের নেতৃত্ব দেয়া ম্যাথু ওয়েড। তিনি বললেন, হঠাৎ করেই অধিনায়কত্ব পেয়েছি। ঠিক যেমন ভারতের বিপক্ষে ঘরের মাঠে ২য় টি-২০ তে অধিনায়কত্ব করতে হয়েছিল। এখানে চ্যালেঞ্জটা ভিন্ন। বিশ্বকাপের আগে নিজেদের গুছিয়ে নিতে হবে। ফলাফল যাই হোক, তৈরি হবার বড় সুযোগ এই সিরিজ। আশা করি সেটা সবাই কাজে লাগিয়ে সেরা ফলটাই আনবে।

পুরো সংবাদ সম্মেলনে একবারও বাংলাদেশ শব্দটা উচ্চারণ করেননি ওয়েড। এমনকি অস্ট্রেলিয়ার কোনো গণমাধ্যমের কেউ প্রতিপক্ষ নিয়ে প্রশ্নও করেননি। অধিনায়কত্ব করতে গিয়ে কিপিং ছাড়বেন কিনা ওয়েড, উপরে নাকি মিডল অর্ডারে খেলবেন, পুরোটা জুড়েই ছিল কেবল নিজেদের কথা।

এসবের জবাবে ওয়েড বলেন, বিশ্বকাপ মাথায় রেখেই ব্যাটিং অর্ডার সাজানো হবে। আমি মিডল অর্ডারেই খেলতে চাই। আর উইকেটকিপিং করবো। মিচেল মার্শ, অ্যাশটন টার্নার আগে সুযোগ কাজে লাগিয়েছেন। আশা করি এবারো সেরকমই হবে।

সে অবশ্য হবারই কথা। বাংলাদেশের সাথে টি-২০ তে শতভাগ জয়ের রেকর্ড অজিদের। মিচেল স্টার্ক – হ্যাজলউডে গড়া পেস আক্রমণ বিশ্বের যেকোনো ব্যাটিং লাইনআপে কাঁপন ধরানোর শক্তি রাখে। জাম্পার লেগ স্পিনের সাথে আছেন অ্যাস্টন অ্যাগার। হার্ড হিটার হিসেবে ম্যাথু ওয়েডের বড় অস্ত্র হতে পারেন তিনিও। একাডেমি মাঠে তিন ঘণ্টার মারকুটে অনুশীলন সে আভাসই দিচ্ছে।


সম্পর্কিত আরও পড়ুন





Leave a reply