নিয়ম মানতে গিয়ে হারাতে হলো মুশফিককে, হতাশ মাহমুদউল্লাহ

|

ছবি: সংগৃহীত

নেই তামিম ইকবাল, নেই লিটন দাস, নেই মুশফিকুর রহিম। অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে দ্বিপক্ষীয় টি-২০ সিরিজের আগেই দলের তিন গুরুত্বপূর্ণ খেলোয়াড়কে হারালেও মূলত মুশফিকুর রহিমের অনুপস্থিতিতেই হতাশ টাইগার অধিনায়ক মাহমুদউল্লাহ।

কোয়ারেন্টিনের ব্যাপারে অস্ট্রেলিয়ার কঠোর অবস্থানের কারণে খেলতে পারছেন না মুশফিক, এতে বাংলাদেশের কোচ রাসেল ডোমিঙ্গোর অসন্তোষ প্রকাশের একদিন পরই অধিনায়ক মাহমুদউল্লাহ জানালেন, এ ঘটনায় তিনিও খুশি নন। তবে সামনের দিকেই তাকাতে চান তিনি, মনোযোগ রাখতে চান সিরিজের দিকেই।

পাঁচ ম্যাচের টি-২০ সিরিজের প্রাক্কালে প্রেস কনফারেন্সে মাহমুদউল্লাহ বলেন, নিঃসন্দেহে মুশফিক আমাদের দলের অন্যতম গুরুত্বপূর্ণ খেলোয়াড়। তাকে পাশে না পেয়ে আমি ব্যক্তিগতভাবেও হতাশ। কিন্তু আমরা খেলোয়াড় আর বিষয়গুলো আমাদের হাতে নেই। ভালো ক্রিকেট খেলা এবং ফলাফলকে নিজেদের অনুকূলে নিয়ে আসাই আমাদের লক্ষ্য। তাই যা হয়ে গেছে তা নিয়ে দুশ্চিন্তায় ভুগছি না আমরা।

এর আগে মুশফিকের খেলার ব্যাপারে আগ্রহ জানিয়ে ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়ার মতামত জানতে চেয়েছিল বিসিবি। ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়াও জানিয়ে দেয় তাদের না-বোধক সিদ্ধান্ত।

মা–বাবার অসুস্থতার কারণে ওয়ানডে ও টি–টোয়েন্টি সিরিজ না খেলে ১৪ জুলাই রাতে জিম্বাবুয়ে থেকে দেশে ফিরে আসেন মুশফিকুর রহিম। পরবর্তীতে তার মা ও বাবার শারীরিক অবস্থার উন্নতি ঘটায় মুশফিক চেয়েছিলেন দলের সাথে বায়ো বাবলে ফিরে অস্ট্রেলিয়া সিরিজটা খেলতে। কিন্তু করোনাকালে হতে যাওয়া এই সিরিজকে ঘিরে অস্ট্রেলিয়ার চাওয়া ছিল, তারা ঢাকায় পা রাখার ১০ দিন আগে থেকে বাংলাদেশ দল এবং আম্পায়ার, ম্যাচ রেফারিসহ সংশ্লিষ্টদের কোয়ারেন্টিনে থাকতে হবে। এ কারণেই জিম্বাবুয়ে সফর থেকে দেশে ফিরে সরাসরি টিম হোটেলে বায়ো বাবলে ঢুকে যায় বাংলাদেশের ক্রিকেটাররা।

কিন্তু জিম্বাবুয়ে সিরিজে টেস্ট খেলার পর দেশে ফিরে এসে বায়ো বাবল থেকে বেরিয়ে যাওয়া মুশফিকের প্রয়োজন ছিল অজিরা বাংলাদেশের পৌঁছানোর দশ দিন আগেই কোয়ারেন্টিন শুরু করা। কিন্তু সময়ের অভাবে তা করা হয়নি। শুধু মুশফিকের কোয়ারেন্টিনে ছাড় দেয়ার জন্য সিএ (ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়া)কে দেয়া বিসিবির অনুরোধ প্রত্যাখ্যাত হওয়ায় ঘরের মাঠে দর্শক হয়েই থাকতে হচ্ছে বাংলাদেশের অন্যতম নির্ভরযোগ্য ক্রিকেটার মুশফিকুর রহিমকে।  





সম্পর্কিত আরও পড়ুন







Leave a reply