গাইবান্ধায় কাভার্ড ভ্যান ও সিএনজির মুখোমুখি সংঘর্ষে ৪ জন নিহত, আহত ৩

|

গাইবান্ধা প্রতিনিধি:

গাইবান্ধার পলাশবাড়িতে সিএনজি ও কাভার্ড ভ্যানের মুখোমুখি সংঘর্ষে দুই বাহনেরই চালকসহ চার জন নিহত হয়েছে। এ সময় আহত হয়েছেন শিশুসহ আরও তিন জন।

শুক্রবার (৩০ জুলাই) সন্ধ্যা ৬টার দিকে রংপুর-ঢাকা মহাসড়কের পলাশবাড়ি উত্তর বাসস্ট্যান্ড এলাকায় (পেট্রোল পাম্পের সামনে) এ দুর্ঘটনা ঘটে।

নিহতরা হলেন, সিএনজি চালক সবুজ মিয়া (৩৫)। সবুজের বাড়ি গাইবান্ধার গোবিন্দগঞ্জ উপজেলার ফুলবাড়ি গ্রামে। ভোলা জেলার নিয়ামুলক হকের ছেলে জিন্টু মিয়া (৩০), রংপুর মর্ডান মোড়েন বাবুর স্ত্রী সাম্মি আকতার (৩৫) এবং রংপুরের হারাগাছ বাংলা বাজারের শাহ জালাল (৩৫)।

পুলিশ ও স্থানীয়রা জানায়, বগুড়াগামী কাভার্ড ভ্যানটি পলাশবাড়ির উত্তর বাসস্ট্যান্ডে পৌঁছলে হঠাৎ করে ধাপেরহাটগামী একটি সিএনজির সাথে এর মুখোমুখি সংঘর্ষ হয়। এতে সিএনজিটি দুমড়ে-মুচড়ে গেলে দুই বাহনেরই চালকসহ এক নারী ঘটনাস্থলেই মারা যান। এ সময় আহত হয় সিএনজিতে থাকা শিশুসহ আরও তিনজন। তাদের মধ্যে, পলাশবাড়ি হাসপাতালে নেওয়ার পর মৃত্যু হয় আহত অপর এক নারীর।

পরে খবর পেয়ে হাইওয়ে থানার পুলিশ ও ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা এসে আহতদের উদ্ধার করে হাসপাতালে পাঠায়।

বিষয়টি নিশ্চিত করে পলাশবাড়ি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি তদন্ত) মো. মতিউর রহমান জানান, নিহতের লাশ ও দুর্ঘটনা কবলিত সিএনজি উদ্ধারে ঘটনাস্থলে হাইওয়ে পুলিশ কাজ করছে।

এদিকে, দুর্ঘটনার পরপরই ঘটনাস্থল পরির্দশন করেছেন গাইবান্ধা জেলা পুলিশ সুপার মো. তৌহিদুল ইসলাম। এ সময় তিনি দুর্ঘটনার কারণ অনুসন্ধান করাসহ দোষীদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলে জানান।





সম্পর্কিত আরও পড়ুন







Leave a reply