অলিম্পিকে সাঁতারুদের সোলক্যাপ ব্যবহারে আসছে নিষেধাজ্ঞা

|

সাঁতারুদের সোলক্যাপ ব্যবহারে আসছে নিষেধাজ্ঞা।

টোকিও অলিম্পিক শুরুর আগেই সাঁতারুদের মাথায় ব্যবহৃত সোল ক্যাপের উপর নিষেধাজ্ঞা জারি করেছিলো আন্তর্জাতিক সাঁতার ফেডারেশন। যেটির নকশা করা হয়েছিলো কেবল কালো চুলের জন্যে। তবে গুঞ্জন উঠেছে এই নিষেধাজ্ঞা তুলে নেয়ার।

সোল ক্যাপ। এই বিশেষ ক্যাপটি ২০১৭ সালে সর্বপ্রথম ব্রিটেনে তৈরি করেছিলেন মাইকেল চ্যাপম্যান এবং টোকস আহমেদ সালাউদ্দিন। মূলত কালো চুলের অধিকারি সাতারুদের জন্য এই ক্যাপ বিশেষ ভাবে বানানো হয়েছিলো। কেননা তাদের চুল সাধারনত ব্রেড,লকস এবং আফ্রোস হয়ে থাকে। আর তাদের সুবিধার্থেই নিজস্ব নকশার এই ক্যাপ তৈরির সিদ্ধান্ত নিয়েছিলেন তারা।

সোল ক্যাপ নামের এই ক্যাপটি মূলত কালো চুলকে সুইমিং পুলের পানিতে মেশানো ক্লোরিন থেকে বাচানোর জন্য বিশেষ ভাবে তৈরি করা হয়েছে। কিন্তু এই ক্যাপ নিয়ে শুরু হয়েছিলো নানা ধরনের আলোচনা-সমালোচনা।

চলতি মাসের শুরুতে সোল ক্যাপের প্রতিষ্ঠাতা অলিম্পিক সাঁতারুদের এই বিশেষ ক্যাপ ব্যবহারের জন্য আবেদন করেছিলো। কিন্তু এই আবেদন নাকচ করে দেয় আন্তর্জাতিক সাঁতার ফেডারেশন। কারণ হিসেবে বলা হয়েছিলো আন্তর্জাতিক ইভেন্টে অংশ নেয়া অ্যাথলেট্দের কখনোই এ ধরনের ক্যাপ ব্যবহার করার প্রয়োজন পড়েনি। সোল ক্যাপ মাথার আকৃতিকে ব্যহত করে, কিছুটা বাড়তি সুবিধাও দেয়। কোন ইভেন্টে অ্যাথলেটরা এমন পোশাকই পরে যা প্রতিযোগীতামূলক। সেক্ষেত্রে সোল ক্যাপ অ্যাথলেটদের জন্য উপযুক্ত নয়।

দুবার অলিম্পিক পদক প্রাপ্ত যুক্তরাষ্ট্রের সাঁতারু লিয়া নিল বলেছেন, এই ক্যাপ স্বাভাবিকের চাইতে আকৃতিতে বড় এবং তিনি কখনোই এই ধরনের ক্যাপ পরে প্রতিযোগীতায় অংশগ্রহণ করেননি ।

এখন দেখার বিষয় শেষ পর্যন্ত এই বিশেষ ক্যাপের ব্যাপারে কি সিদ্ধান্ত নেয় ফিনা।

/এসএইচ





সম্পর্কিত আরও পড়ুন







Leave a reply