অ্যাথলেটদের মেজাজ হারানোর অলিম্পিক

|

আর্জেন্টিনা বনাম স্পেনের হকি ম্যাচে সংঘটিত অনাকাঙ্ক্ষিত ঘটনার দৃশ্য। ছবি: সংগৃহীত

চলতি টোকিও অলিম্পিক যেন পরিণত হয়েছে অ্যাথলেটদের মেজাজ হারানোর আসরে। এবার বক্সিং রিংয়ে ঘটেছে অপ্রীতিকর ঘটনা। ম্যাচ হারের যন্ত্রণায় প্রতিপক্ষের কানে কামড় বসিয়েছেন মরক্কোর বক্সার ইউনেস বাল্লা। তবে সফল হয়নি তার চেষ্টা। এর আগে হকি ইভেন্টে স্টিক দিয়ে প্রতিপক্ষের মাথায় আঘাত করেছিলেন আর্জেন্টাইন খেলোয়াড় লুকাস রসি।

ডেভিড নিকার কান কামড়ে দিচ্ছেন ইউনেস বাল্লা। ছবি: সংগৃহীত

২০১৪ বিশ্বকাপ ফুটবলে ইতালি ডিফেন্ডার জর্জিও কিয়েলিনিকে কামড় বসিয়েছিলেন উরুগুয়ে স্ট্রাইকার লুইস সুয়ারেজ। এমন কাণ্ড তিনি ঘটিয়েছেন আরও দু’বার।

তবে ক্রীড়াঙ্গনে প্রতিপক্ষকে কামড় দেয়ার প্রথম ঘটনাটি ঘটে ২৪ বছর আগে। বাইট ফাইট খ্যাত সে ম্যাচে ইভান্ডার হলিফিল্ডের কান কামড়ে দিয়েছিলেন মার্কিন বক্সার মাইক টাইসন। যে ঘটনায় ১৫ মাসের জন্য নিষিদ্ধ হয়েছিলেন তিনি।

এবার টোকিও অলিম্পিকে প্রায় একই কাণ্ড ঘটাতে চলেছিলেন মরক্কোর বক্সার ইউনেস বাল্লা। শেষ ষোলোর একতরফা লড়াইয়ে তিনি হেরে যান নিউজিল্যান্ডের বক্সার ডেভিড নিকার কাছে। আর পরাজয় নিশ্চিত জেনে প্রতিপক্ষের কানে কামড় বসানোর চেষ্টা করেন বাল্লা।

তবে সফল হয়নি তার কামড়ের চেষ্টা। ম্যাচের শেষ রাউন্ডে এই অঘটন ঘটান ইউনেস। ম্যাচে ৫-০ ব্যবধানে জয় পান ডেভিড নিকা। তবে পুরো ঘটনাটি অবশ্য চোখে পড়েনি ম্যাচ রেফারির। ম্যাচ শেষে ঘটনার সত্যতা পায় অলিম্পিক কমিটি। বহিস্কার করা হয় ইউনেস বাল্লাকে।

চলতি টোকিও অলিম্পিকে এটিই প্রথম অপ্রীতিকর ঘটনা নয়। এর আগে হকি ইভেন্টে স্পেন-আর্জেন্টিনা ম্যাচে ঘটে আরো একটি অঘটন। যেখানে স্টিক দিয়ে স্পেনের এক খেলোয়াড়ের মাথায় আঘাত করেছিলেন আর্জেন্টাইন লুকাস রসি। সংঘর্ষে জড়ায় দু’দল। শেষ পর্যন্ত ম্যাচের ইতি টানতে বাধ্য হয়েছিলেন রেফারি।


সম্পর্কিত আরও পড়ুন





Leave a reply