অলিম্পিকে নেই রাশিয়ার নাম, আছে তাদের অ্যাথলেট

|

দেশের নাম, পতাকা, জাতীয় সঙ্গীত ছাড়াই টোকিও অলিম্পিকে অংশ নিচ্ছে রাশান অ্যাথলেটরা। ছবি: সংগৃহীত

অলিম্পিকের ৩য় দিন পার হতে না হতেই পয়েন্ট টেবিলের শ্রেষ্ঠত্ব ধরে রাখা নিয়ে শুরু হয়ে গেছে জায়ান্টদের লড়াই। বরাবরই চীন, যুক্তরাষ্ট্রের সাথে পাল্লা দিয়ে পদক জয়ের লড়াইয়ে থাকে ব্রিটেন, রাশিয়া।

কিন্তু এখন পর্যন্ত রাশানদের দাপট পদক তালিকায় না দেখা গেলেও, ROC নামে একটি দেশ চালিয়ে যাচ্ছে তাদের লড়াই। আদতে এই ROC’ই হচ্ছে রাশিয়া। এবারের আসরে নিজেদের দেশের নামের বদলে ROC নাম দিয়ে খেলতে হচ্ছে তাদের।

রাশিয়াকে ডোপিং কেলেঙ্কারিতে নিষিদ্ধ করেছে কোর্ট অব আরবিট্রেশন ফর স্পোর্টস। তাই নিজেদের দেশের নাম, পতাকা, এমনকি জাতীয় সঙ্গীতও ব্যবহার করতে পারছে না দেশটির অ্যাথলেটরা। জাতীয় সঙ্গীতের সময় বাজানো হচ্ছে রাশিয়ান অলিম্পিক কমিটি ROC’র থিম সং।

২০১৬ রিও অলিম্পিকে টেবিলের চারে থেকে আসর শেষ করা রাশিয়ার নাম এবার থাকছে না তাদের ডোপিং কেলেঙ্কারির জন্য। কোর্ট অব অরবিট্রেশন ফর স্পোর্টস নিষেধাজ্ঞায় রাশিয়া থাকলেও, দেশটির অ্যাথলেটদের অংশ নিতে কোন বাধা নেই।

ওয়ার্ল্ড অ্যান্টি ডোপিং এজেন্সির (ওয়াডা) মহাসচিব অলিভিয়ার নিগগিল জানান, তাদের যে সকল অ্যাথলেট ২০১২, ২০১৩, ২০১৪ সালে খেলেছে তারা এখানে নেই। এরা সম্পূর্ণ নতুন প্রজন্ম। রাশিয়ার উপর নিষেধাজ্ঞা থাকলেও এই অ্যাথলেটদের খেলতে কোন বাধা নেই। যদিও নিয়মিতই আমরা তাদের পরীক্ষা করছি।

অ্যাথলেটদের জার্সিতে রাশিয়ার পতাকা না থাকলেও, রাশিয়ার পতাকার তিন রং সাদা-নীল-লাল ব্যবহার করা জার্সি তারা পরতে পারছেন।

কোর্ট অব আরবিট্রেশন ফর স্পোর্টসের রাশিয়াকে দেয়া এই নিষেধাজ্ঞা বহাল থাকবে ২০২২’র শীতকালীন অলিম্পিক পর্যন্ত। ততদিন পর্যন্ত দেশটির অ্যাথলেটদের ROC নামেই খেলতে হবে।


সম্পর্কিত আরও পড়ুন





Leave a reply