চীনকে টপকে গেলো যুক্তরাষ্ট্র ও জাপান

|

যুক্তরাষ্ট্রের ভিন্স হ্যানকক ও অ্যাম্বার ইংলিশ স্কেট শ্যুটিংয়ে স্বর্ণপদক জিতেছেন। ছবি: সংগৃহীত

অলিম্পিকের তৃতীয় দিন আধিপত্য দেখিয়েছে যুক্তরাষ্ট্র ও জাপান। একাধিক ইভেন্টে স্বর্ণ জিতে চীনকে টপকে শীর্ষে চলে গিয়েছে তারা। এদিকে জুডোতে চারটি স্বর্ণ পদকই গেল জাপানের ঘরে। আর ঝড়ের পূর্বাভাসে এগিয়ে আনা হল সার্ফিং ফাইনালের সূচি।

প্রথমে ছেলেদের ১০০ মিটার ব্যাকস্ট্রোকে স্বর্ণ জিতেছেন অ্যাডাম পিটি। এরপর ১০ মিটার সিনক্রোনাইজড ডাইভিংয়ে স্বর্ণপদক পান টম ডেলি-ম্যাটি লি জুটি। মেয়েদের স্কেট শ্যুটিংয়ে সোনা জিতেছেন অ্যাম্বার ইংলিশ। ঠিক তার কিছু সময় পরই ছেলেদের স্কেট শ্যুটিংয়ের স্বর্ণও গেলো যুক্তরাষ্ট্রের কাছেই। পুরো সিরিজে মাত্র একটি শট মিস করে ৫৯ স্কোর করে স্বর্ণপদকটি পান ভিনসেন্ট হ্যানকক। আর মাউন্টেইন বাইক সাইক্লিংয়ে স্বর্ণপদকটি পেলেন টিম প্যাডাক। আর্টিস্টিক জিমন্যাস্টেও ছেলেদের দলগত স্বর্ণ জিতে নেয় যুক্তরাষ্ট্র। অলিম্পিকে একসাথে এতগুলো স্বর্ণ পাওয়ার এটিই প্রথম রেকর্ড যুক্তরাষ্ট্রের।

জুডোতে ছেলেদের ৭৩ কেজি ওজন শ্রেণিতে স্বর্ণপদক পেয়েছেন ওনো শোহেই। এই নিয়ে জুডোতে চারটি স্বর্ণ পদক গেলো জাপানের ঘরে। এদিকে ৫৭ কেজি ওজন শ্রেণিতে তিন মিনিটেই স্বর্ণ জিতে ফেললো কসোভার নোরা গিয়াকোভা। প্রতিপক্ষ নিয়ম ভাঙায় ডিসকোয়াফাইড হলে স্বর্ণপদকটি যেন নিজে থেকেই ধরা দিলো শোহেইকে।

আর্চারিতে স্বর্ণপদক পেলো দক্ষিণ কোরিয়া। চাইনিজ তাইপের বিপক্ষে ৬-০ ব্যবধানে জিতে যায় দক্ষিণ কোরিয়া। ফলে রূপা জুটলো চাইনিজ তাইপের। আর জাপান পেলো ব্রোঞ্জ।

এদিকে মেয়েদের ১০০ মিটার বাটারফ্লাইয়ের স্বর্ণ গেলো কানাডার ঘরে। ৫৫ দশমিক ৫৯ সেকেন্ডে সাঁতার শেষ করে পদকটি নিজের করে নেন ম্যাকনিল। ৫৫ দশমিক ৬৪ সেকেন্ডে সাঁতার শেষ করে রূপা পান চীনের ঝ্যাং ইউফে। আর ৫৫ দশমিক ৭২ সেকেন্ড সময় নিয়ে ব্রোঞ্জ গেলো অস্ট্রেলিয়ের এমা ম্যাককিওনের হাতে।

এদিকে আগামী বুধবার (২৮ জুলাই) হবার কথা ছিলো সার্ফিংয়ের ফাইনাল। কিন্তু ভেন্যু সুরিগাসাকি সৈকতে সেদিন ঝড়ের পূর্বাভাস থাকায় এগিয়ে আনা হয়েছে ফাইনালের সূচি। তাই আগামীকালই (২৭ জুলাই) অনুষ্ঠিত হবে সার্ফিংয়ের ফাইনাল।





সম্পর্কিত আরও পড়ুন







Leave a reply