সিরাজগঞ্জে ওয়ার্ড কাউন্সেলরের বিরুদ্ধে যুবককে পিটিয়ে হত্যার অভিযোগ

|

নিহত সোহেল রানার মা মোছা. রোমি বেগম আহাজারি করে বলেন, নাজমুল, হ্নদয় আর রানা মিলে আমার ছেলেকে মেরে ফেলেছে।

স্টাফ রিপোর্টার, সিরাজগঞ্জ:‌

সিরাজগঞ্জের শাহজাদপুর পৌরসভার ৪ নং ওয়ার্ড কাউন্সেলর নাজমুল হাসানের বিরুদ্ধে সোহেল রানা (৩৭) নামের এক যুবককে পিটিয়ে হত্যার অভিযোগ উঠেছে। নিহত সোহেল রানা উপজেলার পৌর সদরের পুকুর পাড় মহল্লার আসাব আলীর ছেলে।

নিহত সোহেল রানার মা মোছা. রোমি বেগম (৬০) আহাজারি করে বলেন, নাজমুল, হ্নদয় আর রানা মিলে আমার ছেলেকে মেরে ফেলেছে।

স্থানীয়রা জানায়, রবিবার (২৫ জুলাই) সন্ধ্যায় সোহেল রানা বাড়ি থেকে বের হয়ে পাশের মার্কেটে গেলে শাহজাদপুর পৌরসভার ৪ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর নাজমুল হাসান, হৃদয় খান এবং রানা মিলে তাকে বেধড়ক মারপিট করে। এলাকাবাসী আহত অবস্থায় সোহেলকে উদ্ধার করে প্রাথমিক চিকিৎসার পর বাড়ি নিয়ে যায়। সোমবার (২৬ জুলাই) সোহেল আবার অসুস্থ হয়ে পড়লে তাকে স্থানীয় পিপিডি হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। সেখানকার কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

এদিকে কাউন্সেলর নাজমুল হাসানের ভাই পৌর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক হওয়ায় ভয়ে তারা অভিযোগ করতে পারছেন বলে জানায় নিহত সোহেলের পরিবার। অন্যদিকে জড়িতরা প্রশাসনকে না জানিয়ে বিষয়টি ধামাচাপা দিতে তড়িঘড়ি করে লাশ দাফনের পায়তারা করেছে বলেও জানা গেছে।

এ বিষয়ে শাহজাদপুর থানার অফিসার ইনচার্জ সাহিদ মাহমুদ খান বলেন, খবর পেয়ে লাশ উদ্ধার করে থানায় নেয়া হয়েছে। ময়নাতদন্তের জন্য লাশ সিরাজগঞ্জ ২৫০ শয্যা বিশিষ্ট বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন্নেছা মুজিব জেনারেল হাসপাতালে পাঠানো হবে। কী কারণে এই মৃত্য হয়েছে তা তদন্তের পরে জানা যাবে বলেও জানান ওই পুলিশ কর্মকর্তা।





সম্পর্কিত আরও পড়ুন







Leave a reply