ঝিনাইদহে গৃহবধূর ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার, পরিবারের অভিযোগ নির্যাতন করে হত্যা

|

ঝিনাইদহ প্রতিনিধি:

ঝিনাইদহের শৈলকুপায় সাথী খাতুন নামে এক গৃহবধূর লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। নিহতের পরিবার অভিযোগ করছে তাদের মেয়েকে নির্যাতন করে হত্যা করা হয়েছে।

শনিবার (২৪ জুলাই) রাতে শৈলকুপা উপজেলার সারুটিয়া ইউনিয়নের নাদপাড়া গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। নিহত সাথী খাতুন একই গ্রামের ফজলু মণ্ডলের স্ত্রী।

সাথী খাতুনের বাবা নজরুল মণ্ডল জানান, সাথীর স্বামী ফজলু ও শ্বশুর বারিক মণ্ডল মাদকাসক্ত। তার মেয়ের সংসারে দুটি সন্তান রয়েছে। বিয়ের পর থেকেই সাথীকে বিভিন্নভাবে নির্যাতন করতেন ফজুলসহ শ্বশুরবাড়ির লোকজন।

তিনি আরও দাবি করেন, রাতে তার মেয়েকে শারীরিকভাবে নির্যাতন করেন ফজলুর বাবা-মা। এতে সাথী মারা যান। মৃত্যুর পর আত্মহত্যার নাটক সাজাতে ঘরের বারান্দায় তার মেয়েকে ঝুলিয়ে রাখা হয়। আজ সকাল ৭টার দিকে মেয়ের মৃত্যুর সংবাদ পান তিনি।

শৈলকুপা থানার ওসি জাহাঙ্গীর আলম জানান, লাশ উদ্ধারের পর আমরা পোস্টমর্টেমের জন্য ঝিনাইদহ সদর হাসপাতালে পাঠিয়েছি। রিপোর্ট হাতে পেলে আসল ঘটনা এমনিতেই বেরিয়ে আসবে। তবে ভিকটিমের শরীরে কোন নির্যাতনের দাগ পাওয়া যায়নি। এ ঘটনায় কোন আটক নেই।


সম্পর্কিত আরও পড়ুন





Leave a reply