‘তালেবানকে নিয়ে নতুন সরকার গঠন না করলে শান্তি ফিরবে না আফগানিস্তানে’

|

তালেবানের মুখপাত্র সুহাইল শাহিন। ছবি: সংগৃহীত

তালেবানকে সাথে নিয়ে নতুন সরকার গঠন না করলে শান্তি ফিরবে না আফগানিস্তানে। গুরুত্বপূর্ণ শহরগুলোতে চলতেই থাকবে আগ্রাসন। কাতারে বার্তা সংস্থা অ্যাসোসিয়েটেড প্রেসকে দেয়া এক সাক্ষাৎসারে এমন হুঁশিয়ারি দিয়েছেন তালেবানের মুখপাত্র সুহাইল শাহিন।

প্রায় দুই দশকের সংঘাত বন্ধের উদ্দেশ্যে আফগানিস্তান থেকে সেনা প্রত্যাহার করে ন্যাটো এবং যুক্তরাষ্ট্র। এরপর থেকেই একের পর এক শহর দখলে নিচ্ছে সশস্ত্র গোষ্ঠী তালেবান। চলছে যুদ্ধের দামামা।

তালেবানের মুখপাত্র সুহাইল শাহিন বলেন, আমরা একচেটিয়া ক্ষমতা ধরে রাখায় বিশ্বাসী না। আফগানিস্তানে আগে কোনো সরকারই এভাবে ক্ষমতা আঁকড়ে ধরে সফল হতে পারেনি। তবুও বর্তমান প্রশাসন কোন মীমাংসার পথে হাটতে চায় না। তারা চায় আমাদের আত্মসমর্পণের মাধ্যমে যুদ্ধবিরতি কার্যকর করতে। তাদের এই অগ্রহণযোগ্য আচরণ আমরা কখনও মেনে নিবো না।

তালেবানের এই নেতার দাবি, গত ৮ সপ্তাহে তারা দখলে নিয়েছে ১৯৪টি জেলা। সেনাবাহিনীর বহু সদস্য যোগ দিয়েছে তাদের সাথে। দেশের মানুষ জাতীয় এবং ইসলামের মূল্যায়ন ও সহনশীলতার জন্য তাদেরকে সমর্থন দিচ্ছে।

সুহাইল শাহিন আরও বলেন, যেসব জেলায় সরকার পরাজিত হয়েছে সেখানকার সেনাবাহিনীরাও আমাদের সাথে যোগ দিয়েছে। তারা জনগণের সামনে কথা বলেছে। তারা আর যুদ্ধ করতে চায় না। এমনকি আফগানিস্তানের কোনো বাসিন্দাই চায় না বছরের পর বছর গৃহযুদ্ধ চলুক। আমাদেরও একই চাওয়া। সরকার শুধু বৈঠকই করে গেছে। কিন্তু, কোনো সমাধানে আসতে পারেনি।

তালেবানকে নিয়ে নতুন সরকার কেমন হবে সেই বিষয়ও কথা বলেছেন গোষ্ঠীটির শীর্ষ এই নেতা। তিনি বলেন, নতুন সরকারের অধীনে নারীরা কাজের ও স্কুলে যাওয়ার অনুমতি পাবে। এমনকি রাজনীতিও করতে পারবে। তবে হিজাব অথবা স্কার্ফ পরতে হবে। এতদিন এসবের বিরোধিতা করে আসছিলো তালেবান। তবে আফগান প্রেসিডেন্ট আগেই জানিয়েছেন, কোনোভাবেই ক্ষমতা ছাড়বেন না তিনি।


সম্পর্কিত আরও পড়ুন





Leave a reply