পাওনাদারের লাশ নিয়ে দেনাদারের ঘরের সামনে স্বজনদের অবস্থান

|

মহিপুরে লাশ নিয়ে দেনাদারের বাড়িতে অবস্থান স্বজনদের।

পটুয়াখালী প্রতিনিধি:

পটুয়াখালীর মহিপুরে পাওনা টাকার শোক সইতে না পেরে মৃত্যুর অভিযোগে সুনীল চন্দ্র দাস (৪০) নামের এক মৃত ব্যক্তির লাশ নিয়ে দেনাদারের বাড়িতে অবস্থান করেছে তার স্বজনরা।

গতকাল রাত নয়টায় আলীপুরের নিজ বাড়িতে হৃদযন্ত্রের ক্রিয়া বন্ধ হয়ে তার মৃত্যু হয়। পরে আজ শনিবার সকাল নয়টা থেকে দেনাদার ইউসুফ মুসুল্লির বাড়িতে অবস্থান করে তারা। বেলা ১১টার দিকে পুলিশের হস্তক্ষেপে সুষ্ঠু সমাধানের আশ্বাসে স্বজনরা লাশ সৎকারের উদ্দেশে ফিরিয়ে নিয়ে যায়।

স্বজনদের অভিযোগ, প্রায় দুই বছর আগে জমি দেয়ার কথা বলে সুনীল চন্দ্রের কাছ থেকে ১১ লাখ টাকা নেয় স্থানীয় ইউসুফ মুসুল্লি। দীর্ঘদিন ধরে টাকা ফিরিয়ে দেয়ার বেশ কয়েকটি ওয়াদা দেয় সে। পরে টাকার শোক সইতে না পেরে গতকাল রাতে সুনীল চন্দ্রের মৃত্যু হয়। এ বিষয়ে ইউসুফ মুসুল্লির সাথে যোগাযোগের চেষ্টা করা হলেও তাকে পাওয়া যায়নি।

মহিপুর থানার ওসি মনিরুজ্জামান জানান, ঘটনাস্থলে তিনি নিজে উপস্থিত হয়ে সুষ্ঠু সমাধানের আশ্বাস দিলে স্বজনরা লাশ ফিরিয়ে নিয়ে যায়।

ইউএইচ/





সম্পর্কিত আরও পড়ুন







Leave a reply