বান্দরবানে শিশু গৃহকর্মী নির্যাতনের মামলায় মানবাধিকারকর্মী গ্রেফতার

|

মানবাধিকারকর্মী অ্যাডভোকেট সারাহ সুদীপা ইউনুছ।

বান্দরবান প্রতিনিধি:

বান্দরবানে এক শিশু গৃহকর্মীকে নির্যাতনের অভিযোগে পুলিশ অভিযুক্ত মানবাধিকারকর্মী অ্যাডভোকেট সারাহ সুদীপা ইউনুছকে গ্রেফতার করেছে।

শনিবার (২৪ জুলাই) সকালে তাকে বান্দরবান সদরের বনরুপা পাড়ার নিজ বাসা থেকে গ্রেফতার করে পুলিশ। তবে তার স্বামী ফয়সাল আহমেদ পলাতক রয়েছেন।

গত ২২ জুলাই রওশন আরা নামে এক শিশু গৃহকর্মীকে নির্যাতনের অভিযোগে বান্দরবানের মানবাধিকারকর্মী অ্যাডভোকেট সারাহ সুদীপা ইউনুছ ও তার স্বামী ফয়সাল আহমেদকে আসামি করে বান্দরবান সদর থানায় একটি মামলা দায়ের করা হয়। পরে পুলিশ শিশুটিকে উদ্ধার করে বান্দরবান সদর হাসপাতালে স্বাস্থ্য পরীক্ষা ও চিকিৎসা করে আদালত নিয়ে গেলে আদালত নির্যাতিত শিশু জয়নাব আক্তার জোহরাকে (৯) চট্টগ্রামের হাটহাজারীর সেফহোমে (নিরাপদ আবাসন) প্রেরণের নির্দেশ দেন। বর্তমানে শিশুটি সেফহোমে রয়েছে।

বান্দরবান সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ওসি (তদন্ত) মো. সোহাগ রানা বলেন, শিশু গৃহকর্মীকে নির্যাতনের অভিযোগে বান্দরবান সদর থানায় সারাহ সুদীপা ইউনুস (৪০) ও তার স্বামী ফয়সাল আহম্মেদের (৪৫) নামে একটি মামলা দায়ের করেছে তার এক প্রতিবেশী রওশানা আরা। আর এর প্রেক্ষিতে অভিযান পরিচালনা করে মামলার আসামি সারাহ সুদীপা ইউনুছকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

উল্লেখ্য, বান্দরবানে এক শিশু গৃহকর্মীকে নির্যাতনের ঘটনার একটি ভিডিও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়লে বিষয়টি প্রশাসনের নজরে আসে। নির্যাতিত শিশুটি জানায়, তাকে জ্বলন্ত মশার কয়েল দিয়ে ছ‍্যাকা দেয়াসহ বিভিন্নভাবে নির্যাতন করতো গৃহকর্ত্রী সারাহ সুদীপা ইউনুছ। পরে শিশুটির এক প্রতিবেশী বাদী হয়ে গৃহকর্ত্রী সারাহ সুদীপা ইউনুছ ও তার স্বামী ফয়সাল আহম্মেদের নামে বান্দরবান সদর থানায় একটি মামলা দায়ের করে।

ইউএইচ/





সম্পর্কিত আরও পড়ুন







Leave a reply