যমজ সন্তান জন্ম দেয়ার পর করোনায় মারা গেলেন পাবিপ্রবি’র শিক্ষার্থী

|

পাবিপ্রবির শিক্ষার্থী শারমিন সুলতানা শাম্মি।

যমজ সন্তান জন্ম দেওয়ার কয়েকদিন পরেই করোনায় মারা গেছেন পাবনা বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (পাবিপ্রবি) শারমিন সুলতানা শাম্মি নামে এক শিক্ষার্থী। (ইন্না লিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজিউন)।

শুক্রবার ঢাকার একটি ক্লিনিকে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান তিনি। শাম্মি পাবিপ্রবি’র বাংলা বিভাগের এমএ প্রথম বর্ষের ছাত্রী ছিলেন।

শারমিন সুলতানার বাসা পাবনার কলাবাগান মহল্লায়। সে করোনা পজেটিভ ছিলো। এক সপ্তাহ আগে সে যমজ সন্তানের মা হয়। গত ১৩ জুলাই সকালে করোনার উপসর্গ ও ৮ মাসের প্রেগন্যান্সি নিয়ে পাবনা সদর হাসপাতালে গেলে তার শারীরিক অবস্থা অনেক খারাপ হওয়ায় ডাক্তাররা ঢাকায় রেফার করেন।

ঢাকায় বিভিন্ন সরকারি হাসপাতালে আইসিইউ খুঁজে না পেয়ে তাকে রাজারবাগের প্রশান্তি ক্লিনিকের আইসিইউতে ভর্তি করানো হয়। পরে স্ত্রীরোগ বিশেষজ্ঞরা গত ১৫ জুলাই তার সিজার করানোর সিদ্ধান্ত নিলে শাম্মি যমজ কন্যাসন্তান জন্ম দেন। জন্মের পর থেকে বাচ্চা দুটিকে এনআইসিইউতে রাখা হয়। এরপর শাম্মির শারীরিক অবস্থা বেশি খারাপ হওয়ায় তাকে আইসিইউতে লাইফ সাপোর্টে রাখা হয়। আজ সকালে তার মৃত্যু হয়।

ইউএইচ/


সম্পর্কিত আরও পড়ুন





Leave a reply