বাংলাদেশের বিপক্ষে অবশেষে জয়ের দেখা পেল জিম্বাবুয়ে

|

ছবি: সংগৃহীত

বাংলাদেশের বিপক্ষে অবশেষে জয়ের দেখা পেল জিম্বাবুয়ে। ২য় টি-টোয়েন্টিতে ২৩ রানে জিতেছে তারা। এই জয়ের মাধ্যমে টি-টোয়েন্টি সিরিজে সমতা ফেরালো জিম্বাবুয়ে।

হারারেতে টস জিতে আগে ব্যাটিং করার সিদ্ধান্ত নেয় জিম্বাবুয়ে। ২০ ওভার শেষে ৬ উইকেটে হারিয়ে তাদের সংগ্রহ দাঁড়ায় ১৬৬ রান।

নিয়মিত বিরতিতে উইকেট হারালেও প্রথম ১০ ওভারে ৭৭ রান তুলে নেয় জিম্বাবুয়ে। ক্যারিয়ারে তৃতীয় হাফ সেঞ্চুরি তুলে নেয় ওপেনার ওয়েসলি মাধেভের। ৫৭ বল খেলে ৭৩ রান করেন তিনি। ৫ চার ও ৩ ছক্কায় সাজান তার ইনিংসটি। এরপর শেষ ১০ ওভারে আগ্রাসন বাড়িয়ে তোলে ৮৯ রান। তাতে বড় কৃতিত্ব শেষের ব্যাটসম্যান রায়ান বার্লের। বাঁহাতি
এই ব্যাটসম্যান ১৯ বলে করেন ৩৪ রান। ১৯তম ওভারে সাইফ উদ্দিনে ওভারে তুলে নেন ১৬ রান আদায় করেন। শেষ ওভারেও তার ব্যাট থেকে আসে একটি ছক্কা।

অন্যদিকে, বাংলাদেশের পক্ষে সফল বোলার ছিলেন শরিফুল ইসলাম। জিম্বাবুয়ের ৩টি উইকেট তুলে নেন তিনি। আর সাকিব ও মিরাজ নিয়েছেন একটি করে উইকেট। বাকি একটি ছিলো রানআউট।

জবাবে ব্যাট করতে নেমে শুরুতেই ধাক্কা খায় বাংলাদেশ। ১৭ রানেই দুই ব্যাটসম্যান নাইম ও সৌম্যকে হারিয়ে বিপদে পড়ে টাইগাররা। এরপর সাকিব ও মেহেদী দলের হাল ধরলেও টিকতে পারেনি বেশিক্ষণ। দলীয় ৪৫ রানের মাথায় সাকিব বিদায় নিলে শুরু হয় আসা যাওয়ার মিছিল। মাহমুদুল্লাহ ৪, মেহেদী ১৫ ও নুরুল বিদায় নেয় ৯ রানে। ৬৮ রানেই সাজঘরে ফিরে যায় বাংলাদেশের ৬ ব্যাটসম্যান।

হার এড়াতে আফিফ ও শামিম চেষ্টা করলেও সফল হয়নি তারা। অভিষিক্ত শামিম ১৩ বলে ২৯ রানের ঝড়ো ইনিংস খেলে প্যাভিলিয়নে ফিরলে হার প্রায় নিশ্চিত হয়ে যায় টাইগার বাহিনীর। এরপর সাইফউদ্দিনের ১৯ রান শুধুই হারের ব্যবধান কমায়।

জিম্বাবুয়ের পক্ষে মাসাকাদজা ও লুক জঙ্গুয়ে ৩টি করে এবং মুজারাবানি ও চাতারা ২টি করে উইকেট পায়।

প্রথম ম্যাচে ১৫৩ রান তাড়া করে ৮ উইকেটে জিতেছিল বাংলাদেশ। ৩ ম্যাচের টি-টোয়েন্টি সিরিজ বর্তমানে সমতায়
১-১ আছে।





সম্পর্কিত আরও পড়ুন







Leave a reply