জেট স্যুটে যুক্ত হলো নতুন প্রযুক্তি

|

নতুন প্রযুক্তির ই-স্যুট এনেছে গ্র্যাভিট ইন্ডাস্ট্রিজ।

সুপার হিরোদের মতো উড়ে বেড়ানোর পোশাক জেট স্যুটে এবার যুক্ত হয়েছে নতুন প্রযুক্তি। জেট ফুয়েলের বদলে ব্যবহার করা হয়েছে বিদ্যুৎ। ব্যাটারিতে চলবে বলে এর নাম দেয়া হয়েছে ই-স্যুট। উদ্যোক্তাদের প্রত্যাশা, প্রয়োগের দিক থেকে এটি আরও বেশি কার্যকর হবে।

মার্ভেল কমিকসের আয়রন ম্যান নয়, তারা ব্রিটেনের নৌ সেনা। কিছুদিন আগেই এক প্রশিক্ষণে জেট স্যুট পরে উড়ে বেড়াতে দেখা যায়, রয়্যাল মেরিন সেনাদের।

সময়ের সাথে আধুনিক হচ্ছে জেট স্যুট। বছরখানেক যেতে না যেতেই ব্রিটিশ উৎপাদনকারী প্রতিষ্ঠান গ্র্যাভিটি ইন্ডাস্ট্রিজ জ্বালানি হিসেবে বিদ্যুতের ব্যবহার শুরু করেছে। উদ্যোক্তারা জানান ৫টি জেট ইঞ্জিনের বদলে এখন থেকে ই-স্যুট চলবে ব্যাটারিতে। ইংল্যান্ডের গুডউড ফেস্টিভালে প্রথমবারের মতো প্রদর্শন করা হলো পোশাকটি।

গ্র্যাভিটি ইন্ডাস্ট্রিজের প্রতিষ্ঠাতা রিচার্ড ব্রাউনিং বলেন, গ্যাস-ডিজেলের মতো জ্বালানির বদলে আমরা আরও অধিকতর আধুনিক প্রযুক্তি ব্যবহার করেছি। এরমধ্যেই ট্রায়াল সম্পন্ন হয়েছে ই-স্যুটের। সামরিক বাহিনী বিভিন্ন উদ্ধার অভিযানে ব্যবহার করতে পারবে ই-স্যুট।

ব্রাউনিং আরও বলেন, ইলেকট্রিক ভার্সনে ব্যাটারির ক্ষমতা আরও বাড়ানোর চেষ্টা চলছে। যাতে দীর্ঘ সময় কাজ করে। ব্যাটারির কার্যকারিতা বাড়লে ই-স্যুটের ধরণও উন্নত হবে।

ফুয়েলচালিত এই স্যুট পরে ঘণ্টায় ৩২ মাইল গতিতে ১২ হাজার ফুট পর্যন্ত উচ্চতায় ওঠা সম্ভব। ওড়া যায় চার মিনিটের মতো। তবে এই-স্যুটে ব্যবহৃত ব্যাটারির সক্ষমতা অনুযায়ী আপাতত কয়েক সেকেন্ড মাত্র ওড়া যায়। ব্যাটারির ক্ষমতা আরও বাড়ানোর পরিকল্পনা উদ্যোক্তাদের।

প্রত্যন্ত এলাকা যেখানে গাড়ি প্রবেশ করতে পারে না, কিংবা সমুদ্রে যেকোনো লড়াই বা উদ্ধার অভিযানে এই পোশাক বিশেষ ভূমিকা রাখবে বলে মনে করছে ই-স্যুটের উৎপাদক প্রতিষ্ঠান গ্র্যাভিটি ইন্ডাস্ট্রিজ।


সম্পর্কিত আরও পড়ুন





Leave a reply