ইউরোপের দলবদলের বাজার গরম

|

ফরোয়ার্ডদের ঘিরেই এবার জমে উঠেছে ইউরোপের গ্রীষ্মকালীন দলবদলের বাজার। ছবি: সংগৃহীত

গ্রীষ্মকালীন দলবদলেই রবার্ট লেভানডভস্কিকে দলে ভেড়াতে মরিয়া চেলসি। এই ফরোয়ার্ডের জন্য ৫০ মিলিয়ন ইউরো খরচ করতেও রাজি আছে ক্লাবটি। এদিকে ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড তারকা পল পগবাকে নিয়ে আসতে চায় পিএসজি। আর ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড আগ্রহ প্রকাশ করেছে রিয়াল মাদ্রিদ ডিফেন্ডার রাফায়েল ভারানেকে নিতে।

এদিকে হ্যারি কেইনের ম্যানচেস্টার সিটিতে যাবার ইচ্ছার তেমন দৃশ্যমান কোনো অগ্রগতি হয়নি। টটেনহাম এখনো তাদের মেইনম্যানকে বিক্রির ব্যাপারে ইতিবাচক কোনো মন্তব্য করেনি।

১৩৫ মিলিয়ন অফার করেও আর্লিং হাল্যান্ডকে না পেয়ে এখন ৫০ মিলিয়ন ইউরোতে বায়ার্ন মিউনিখ ফরোয়ার্ডের পেছনে ছুটছে ব্লুজ। তবে তাদের এই দৌড়াদৌড়িতে খুব একটা কিছু হবার সম্ভাবনা ক্ষীণ। কারণ বায়ার্ন মিউনিখ তাদের সেরা তারকাকে ছাড়তে চায় না। লেভার সাথে চুক্তি বাড়ানোর পরিকল্পনা করছে ক্লাবটি।

তবে নিজেদের মূল ফরোয়ার্ড টিমো ভেরনারের চুক্তির মেয়াদ শেষ হয়ে যাচ্ছে, সে দিকে খেয়াল নেই ক্লাবটির। এখনও পর্যন্ত চুক্তি বাড়ানোর কোনো পরিকল্পনা নেই চেলসির।

এদিকে একের পর এক তারকা দলে ভেড়ানোর মধ্যে এবার পল পগবার পেছনে ছুটছে প্যারিস সেইন্ট জার্মেই। তবে পগবাকে নিতে হলে দলটিকে ফুটবলার বিক্রি করতে হবে নিজেদের স্কোয়াড থেকে।

এদিকে শেফিল্ড ইউনাইটেড গোলরক্ষক অ্যারন রামসডেলের পেছনে আঠার মত লেগেছে আর্সেনাল। দু’বার তাদের বিড প্রত্যাখ্যাত হলেও তৃতীয়বারের জন্য প্রস্তুতি নিচ্ছে গানাররা। আগের মৌসুমেই এমিলিয়ানো মার্টিনেজের মতো গোলরক্ষককে বিক্রি করে এখন আবার গোলরক্ষকের পেছনে ছোটায় ইউরোপের স্পোর্টস সাময়িকীগুলোয় তাদের বিরুদ্ধে চলছে সমালোচনা।





সম্পর্কিত আরও পড়ুন







Leave a reply