মশা নিধনে ডোবায় নামলেন সংসদ সদস্য!

|

বসন্তের শুরুতে চারদিকে মশার উপদ্রব বেড়ে গেছে তা আর বলার অপেক্ষা রাখে না। রাজধানীতে মশা নিধনে যখন বলার মতো কোনো উদ্যোগ নেই, তখন প্রত্যন্ত অঞ্চলে মশা নিধনে ডোবায় গিয়ে নেমে পড়লেন এক সংসদ সদস্য!

সোমবার সাতক্ষীরার শ্যামনগর উপজেলার ভুরুলিয়া ইউনিয়নের নাগবাটি গ্রামে কচুরিপানাযুক্ত ডোবা পরিষ্কার করতে শ্রমিকদের সাথে কোমর বেঁধে নামেন সংসদ সদস্য জগলুল হায়দার। নিজে কচুরিপানা পরিষ্কার করে মশা নিধন কার্যক্রমের উদ্বোধন করেন সাতক্ষীরা-৪ আসনের এই সংসদ সদস্য। কাজের মাঝে বিরতিতে শ্রমিকদের সাথে মাটিতে বসেই কাঁচা মরিচ, পিঁয়াজ ও কলা দিয়ে পান্তা ভাত খান তিনি।

সাম্প্রতিক সময়ে বেশ কিছু মানবিক কর্মকাণ্ডে আলোচনায় এসেছেন সাতক্ষীরা-৪ আসনের সংসদ সদস্য এম জগলুল হায়দার। এরআগে, গেঞ্জি গায়ে মালকোচা মেরে কোমরে গামছা পেচিয়ে মাটির ঝুড়ি মাথায় নিয়ে বাঁধ নির্মাণের কাজে হাত লাগিয়েছিলেন। আবার পথের ধারে ক্ষুধার্ত অসহায় শিশুর মুখে নিজ হাতে তুলে দিয়েছেন অন্ন। নিজেই বাজার করে অসহায় ভিক্ষুকের বাড়ি গিয়ে গ্রহণ করেছেন আতিথিয়তা। তার এসব কাজের ছবি রীতিমত ভাইরাল হয়েছে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে। আওয়ামী লীগের অফিসিয়াল ফেইসবুক পেইজসহ সাংগঠনিক প্রচারণাও ব্যবহার হয়েছে এসব ছবি।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে সংসদ সদস্য জগলুল হায়দার যমুনা নিউজকে বলেন, আগের এমপিরা অধিকাংশ সময় ঢাকায় অবস্থান করতো। অনেকে কালেভদ্রে বছরে এক-আধবার এলাকায় ফিরতো। আমি সংসদের গুরুত্বপূর্ণ অধিবেশনের সময়ে শুধু রাজধানীতে অবস্থান করি। মাটি ও মানুষকে কেন্দ্র রাজীনিতিতে আমার আগমন ও উত্থান তাই সেই সব মানুষের পাশে থেকেই তাদের সুবিধা-অসুবিধা, সুখ-দুঃখের অংশীদার হয়ে থাকতে চাই।

যমুনা অনলাইন: এআর/টিএফ









Leave a reply