হিন্দুরাও পালাচ্ছেন মিয়ানমার থেকে

|

শুধু মুসলিম রোহিঙ্গারাই নন, মংডুতে হিন্দু সম্প্রদায়ের ওপরও চলছে নৃশংস নির্যাতন। সেই নির্যাতনের মুখে বাংলাদেশে পালিয়ে এসেছেন চার শতাধিক ‘‌বার্মিজ হিন্দু’।

বুধবার রেজু আমতলা সীমান্ত দিয়ে প্রবেশ করেন তারা। আশ্রয় নেন কক্সবাজারের কুতুপালং পশ্চিম হিন্দুপাড়ার অস্থায়ী শিবিরে।

একটি সশস্ত্র গোষ্ঠী গত ২৫ তারিখে তাদের গ্রামগুলোতে হানা দেয়। বোমা, আগ্নেয়াস্ত্র, ছোরা ছিল তাদের কাছে। ফকিরা বাজার, রিক্তাপাড়া, চিকনছড়ি গ্রাম তিনটি ঘিরে ফেলে আগুন জ্বালিয়ে দেয় বাড়ি-ঘরে। ৮০ জনের বেশি বাসিন্দা এতে মারা যায়। তবে, কালো কাপড়ে নিজেদের ঢেকে রাখায় তাদের পরিচয় আন্দাজ করতে পারেনি গ্রামবাসী।

৭০ টির মতো পরিবার রোহিঙ্গা মুসলিমদের সঙ্গে সীমান্তের এপারে পালিয়ে আসতে সক্ষম হয়। যাত্রাপথে দু’জন হারিয়ে গেছে বলেও জানান শরণার্থীরা।

আশ্রয় নেয়া বিভিন্ন বয়সী নারী-পুরুষ-শিশুর জন্য খাদ্য ও আশ্রয়ের সহায়তা নিয়ে স্থানীয় হিন্দু সম্প্রদায়ের লোকেরা এগিয়ে এসেছেন ইতোমধ্যে।

২৪ আগস্ট রাতে, রাখাইনে পুলিশ চৌকি ও সেনাঘাঁটিতে হামলা হয়। এর পরিপ্রেক্ষিতে  শুরু হওয়া সহিংসতা এখনো অব্যাহত আছে। সরকারি হিসেব অনুসারে মৃতের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ১১২ জনে। বুধবারই আরো ৭ জনের নিহতের  তথ্য নিশ্চিত করে দেশটির তথ্য মন্ত্রণালয়।

ডেইলি স্টারের প্রতিবেদন অবলম্বনে- সৌমিত্র শুভ্র।

যমুনা অনলাইন- এফআর।





সম্পর্কিত আরও পড়ুন







Leave a reply