পাকিস্তানের প্রথম হিন্দু নারী সিনেটর হচ্ছেন কোহলি

|

ইসলামী প্রজাতন্ত্র পাকিস্তানে প্রথমবারের মতো একজন হিন্দু নারী দেশটির সিনেটর নির্বাচিত হতে চলেছেন। কৃষ্ণাকুমারী কোহলি সিন্ধু প্রদেশের সংখ্যালঘু আসন থেকে পাকিস্তান পিপলস পার্টির প্রতিনিধি হিসেবে দাঁড়াচ্ছেন।

গরিব পরিবারের সন্তান কৃষ্ণার নবম শ্রেণিতে পড়ার সময় বিয়ে হয়ে যায়। কিন্তু পড়াশোনা থামাননি তিনি। সিন্ধু বিশ্ববিদ্যালয় থেকে ২০১৩ সালে সমাজতত্ত্বে স্নাতকোত্তর ডিগ্রি লাভ করেন। এরপর সমাজকর্মী হিসেবে পিপিপি-তে যোগ দেন তিসি। স্বাধীনতা সংগ্রামী প্রপিতামহ রূপলু কোলহিকে ১৮৫৭ সালে ব্রিটিশ সরকার ফাঁসি দিয়েছিল।

এক বিবৃতিতে পিপিপি-এর একজন মুখপাত্র বুধবার বলেন, “পাকিস্তানের প্রথম হিন্দু নারী সিনেটার হতে যাচ্ছেন কোহলি।”

আগামী ৩ মার্চ অনুষ্ঠিত হতে যাওয়া নির্বাচনকে সামনে রেখে ৩৯ বছর বয়সী কোলহির যাবতীয় কাগজপত্র ইতিমধ্যেই গ্রহণ করেছে পাকিস্তান নির্বাচন কমিশন।

এর আগে পিপিপি নির্বাচিত খটুমল জীবন ২০০৯ সালে পাকিস্তানের প্রথম দলিত সিনেটর হন। এরপর ২০১৫ সালে দলিত সিনেটর হয়েছিলেন গিয়ানচাঁদ।

যমুনা অনলাইন: এফএইচ









Leave a reply