‘সংবিধান রক্ষায় যে কোন হুমকি মোকাবিলায় সেনাবাহিনীকে প্রস্তুত থাকতে হবে’

|

সংবিধান রক্ষায় যে কোন হুমকি মোকাবিলায় সেনাবাহিনীকে প্রস্তুত থাকতে হবে, নাটোরের কাদিরাবাদ সেনানিবাসে কোর অব ইঞ্জিনিয়ারর্স’র ৬ষ্ঠ কোরের পুনর্মিলনী ২০১৮’র অধিনায়ক সম্মেলনে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এ কথা বলেন।

তিনি আরও বলেন, সেনাবাহিনীর সাথে রয়েছে আমাদের পারিবারিক সম্পর্ক। আমার দুই ভাই, শহীদ ক্যাপ্টেন শেখ কামাল ও শহীদ লেফটেন্যান্ট শেখ জামাল মহান মুক্তিযুদ্ধে অংশগ্রহণ করেছিলেন। ছোট ভাই রাসেলের ইচ্ছা ছিল বড় হয়ে সেনাবাহিনীতে যোগ দিবে। কিন্তু ১৯৭৫ সালের ১৫ আগস্ট ঘাতকেরা সবাইকে নির্মমভাবে হত্যা করে। আমি আপনাদের মাঝে আমার হারানো ভাইকে খুঁজে পাই।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেন,  পবিত্র সংবিধান এবং দেশের সার্বভৌমত্ব সুরক্ষায় আপনাদের ঐক্যবদ্ধ থেকে অভ্যন্তরীণ বা বাহ্যিক যেকোন হুমকি মোকাবিলায় প্রস্তুত থাকতে হবে। দেশের গণতান্ত্রিক ও সাংবিধানিক ধারা অব্যাহত রাখার পাশাপাশি আধুনিক, উন্নত ও সুখী-সমৃদ্ধ বাংলাদেশ বিনির্মাণে সেনাবাহিনীকে গুরুত্বপূর্ণ অবদান রাখতে হবে।

 নাটোরের কাদিরাবাদ সেনানিবাস থেকে  নতুন আটটি থানাসহ ২৫টি উন্নয়ন প্রকল্পের উদ্বোধন করতে রাজশাহী যাবেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।









Leave a reply