প্রীতির অভিযোগে সাবেক প্রেমিকের বিরুদ্ধে চার্জশিট

|

প্রীতির জিনতার অভিযোগের পরিপ্রেক্ষিতে তার সাবেক প্রেমিক নেস ওয়াদিয়ার বিরুদ্ধে চার্জশিট দিয়েছে মুম্বাই পুলিশ। অভিযোগের চার বছর পর ভারতীয় দণ্ডবিধির ৩৫৪, ৫০৬, এবং ৫০৯ ধারায় মামলা দায়ের করা হয়েছে।

ঘটনার সূত্রপাত, ২০১৪ সালের ৩০ মে মুম্বাইয়ের ওয়াংখেড়ে স্টেডিয়ামে। ওইদিন আইপিএল-এ কিংস ইলেভেন পঞ্জাব ও চেন্নাই সুপার কিংসের ম্যাচ চলাকালীন সময়ে প্রীতি ও নেসের মধ্যে চরম আকার ধারণ করে।

প্রীতির দাবি, দলের এক কর্মীকে গারওয়ার প্যাভিলিয়নে টিকিট বিলি নিয়ে বকাঝকা করলে নেসকে শান্ত হতে বলেছিলেন তিনি। কিন্তু শান্ত না হয়ে খেপে গিয়ে প্রীতির হাত ধরে টেনে তাকে মারেন নেস। জায়গা বদল করার পরেও তাকে গালিগালাজ করাসহ দলের সবার সামনে হেনস্থা করেন নেস। অভিযোগের স্বপক্ষে চারটি ছবিও তিনি পুলিশকে দিয়েছেন।

মুম্বাই পুলিশ কমিশনার রাকেশ মারিয়াকে লিখা চিঠিতে তিনি আইপিএল ম্যাচের সেই ঘটনার পর থেকে ক্রমাগত তার প্রতি নেসের বিভিন্ন খারাপ ব্যবহারের ঘটনা তুলে ধরে অভিযোগ করেন। এর মধ্যে রয়েছে ঘরে আটকে রাখা, মুখে জ্বলন্ত সিগারেট ছুড়ে মারা, মারধর ইত্যাদি।

ফেসবুকে তিনি লিখেছেন, “আমার আর কোনও উপায় ছিল না। গত কয়েক বছর যাবৎ বারবার হুমকি পেয়েছি। আসলে বিষয়টা হচ্ছে, কারও মারধর বা খারাপ ব্যবহার মেনে নেওয়া উচিত নয়; হোক সে ধনী বা গরিব, পুরুষ বা মহিলা, সেলেব্রিটি কিংবা সাধারণ মানুষ।”

এ সব অভিযোগকে বরাবরই মিথ্যা ও ভিত্তিহীন বলে দাবি করে আসছেন ব্যবসায়ী নেস ওয়াদিয়া।

তাদের সম্পর্কের সূত্রপাত ২০০৫ সালে ঘটেছিল। এরপর কয়েক বছর ধরে উভয়ের পেশাগত সাফল্য ও সম্পর্কের রসায়ন দেখে অনেকেই ভেবেছিলেন বিয়েটা সময়ের ব্যাপার মাত্র।

কিন্তু এর চার বছরের মাথায় ২০০৯ সালেই সম্পর্কে তিক্ততার শুরু হয়- একটি পার্টিতে প্রীতিকে চড় মারার অভিযোগ ওঠার মধ্য দিয়ে।  এরপর থেকে ক্রমাগত নানা ঘটনায় তাদের মধ্যকার তিক্ততা বাড়তেই থাকে।

যমুনা অনলাইন: এফএইচ

 









Leave a reply