পূর্ব জেরুজালেমে ইহুদিদের পতাকা মিছিল: আবারো উত্তেজনার আশঙ্কা

|

১৯৬৭ সালে পূর্ব জেরুজালেম দখলের দিনটিকে স্মরণ করে প্রতি বছর ওই অঞ্চলে পতাকা মিছিল করে দিনটি উদযাপন করে উগ্রপন্থী ইহুদিরা। দিনটিকে উদযাপন করতে অধিকৃত পূর্ব জেরুজালেমের ওল্ড সিটিতে গত মঙ্গলবার (১৫ জুন) পতাকা নিয়ে পদযাত্রা করে উগ্রপন্থী ইহুদিরা। এ নিয়েই জেরুজালেমে আবারও উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়ার সম্ভাবনা দেখা দিয়েছে।

ইসরাইলের নতুন প্রধানমন্ত্রী নাফতালি বেনেট এর অনুমোদনে পূর্ব জেরুজালেমে অনুষ্ঠিত পতাকা মিছিলের পর ফিলিস্তিনিদের সঙ্গে ফের উত্তেজনার আশঙ্কা তৈরি হয়েছে। রাজনৈতিক পরিস্থিতি অবনতির আশঙ্কার মধ্যেই সোমবার (১৪ জুন) ইসরায়েলের নতুন সরকার মিছিলের জন্য সবুজ সংকেত দেয়। এর আগে হামাসের হুমকিতে নিরাপত্তার অজুহাতে এ মিছিল বাতিল করা হয়েছিল।

এদিকে স্থানীয় ফিলিস্তিনিদের দাবী ওই পদযাত্রা থেকে তাদের উদ্দেশ্যে দেয়া হয়েছে উস্কানিমূলক শ্লোগান। তাদের দাবী উগ্রপন্থী ইহুদিরা ইসরাইলের পতাকা হাতে ‘আরবদের মৃত্যু’ ও ‘জ্বলতে পারে তোমাদের গ্রাম’ ইত্যাদি শ্লোগান দিয়েছে। তাছাড়া পতাকা মিছিলকে কেন্দ্র করে শহরের দামেস্ক গেটের দিকে যাবার রাস্তাও বন্ধ করে দিয়েছে ইসরাইলি পুলিশ। এতে ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন ফিলিস্তিনিরা।

ফিলিস্তিনের প্রধানমন্ত্রী মোহাম্মদ শাতায়িহ ইসরাইলিদের এই পতাকা মিছিল বা পদযাত্রাকে উস্কানিমূলক হিসেবে বর্ণনা করেছেন। পতাকা মিছিলের জবাবে ফিলিস্তিনিরা ইহুদিদের পদযাত্রার বিরুদ্ধে ‘ক্ষোভ প্রকাশের দিন’ পালনের পাল্টা কর্মসূচি ঘোষণা করেছে।

এর মধ্যেই ইসরাইলি বাহিনীর দিকে পাথর ছোঁড়ার অভিযোগে ১৭ ফিলিস্তিনি নাগরিককে আটক করেছে ইসরাইলি পুলিশ। তাদের দাবী ফিলিস্তিনিদের নিক্ষিপ্ত পাথরে আহত হয়েছেন ইসরাইলের দুই পুলিশ কর্মকর্তা। এ প্রসঙ্গে ইসরাইলের অভ্যন্তরীণ নিরাপত্তামন্ত্রী ওমর বারলেভ বলেছেন, গণতন্ত্রে প্রত্যেকের সমান অধিকার রয়েছে প্রতিবাদ করার। আমরা চেষ্টা করব যতটুকু সম্ভব সুসম্পর্ক বজায় রাখার। তবুও সতর্কতা হিসেবে আমাদের পুলিশ প্রস্তুত রয়েছে।





সম্পর্কিত আরও পড়ুন







Leave a reply