তারা আসুক না আসুক, নির্বাচন সময়মতো হবে: প্রধানমন্ত্রী

|

আগামী সংসদ নির্বাচন সময়মতোই হবে। আর এবারও বিএনপি তাতে অংশ না নিলে, কারও করার কিছু নেই বলে মন্তব্য করেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। ইতালি সফর নিয়ে গণভবনে ডাকা সংবাদ সম্মেলনে একথা বলেন তিনি। এসময় প্রশ্নফাঁস প্রসঙ্গে প্রধানমন্ত্রী বলেন, প্রশ্নফাঁস নতুন কিছু নয়, মন্ত্রী-সচিবরা প্রশ্নফাঁস করেন না। ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনের ৩২ ধারা নিয়ে সাংবাদিকদের উদ্বেগের কিছু নেই জানিয়ে তিনি বলেন, এখনও সংশোধনের সুযোগ আছে।

বিএনপির গঠনতন্ত্র সংশোধন এ নির্বাচনে অংশগ্রহণ প্রসঙ্গে প্রশ্নের জবাবে প্রধানমন্ত্রী বলেন, তারা আসুক না আসুক নির্বাচন সময় মতো হবে, কেউ আটকাতে পারবে না। বিএনপির নেতৃত্বের কী এতোই দৈন্যদশা যে অন্য কাউকে ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান করতে পারত না! বিএনপিতে কি একটা নেতাও দেশে নেই, যাকে ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান করতে পারত?

ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনের ৩২ ধারা প্রসঙ্গে এক প্রশ্নের জবাবে প্রধানমন্ত্রী বলেন, সাংবাদিকদের শঙ্কার কিছু নেই। যাচাই-বাছাইয়ের বিভিন্ন পর্যায়ে বিবেচনার সুযোগ আছে বলে জানান তিনি।

প্রশ্নফাঁসে জড়িত ব্যক্তিদের বিরুদ্ধে সরকার শাস্তিমূলক পদক্ষেপ নিতে পারছে না কেনো? ব্যর্থ মন্ত্রী-আমলাদের বিরুদ্ধে কী নেয়া হচ্ছে এমন প্রশ্নের জবাবে প্রধানমন্ত্রী বলেন, প্রশ্নফাঁস নতুন কিছু না, যুগযুগ ধরে হচ্ছে। মন্ত্রী আর সচিব গিয়ে তো প্রশ্নফাঁস করেনি, তাদের কেন সরে যেতে হবে। আপনাদের সাংবাদিকদের বিভিন্ন জায়গায় এজেন্ট আছে। যারা প্রশ্নফাঁস করেছে তাদের ধরিয়ে দেন, ব্যবস্থা নেব।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, প্রশ্নফাঁস হচ্ছে ২০ মিনিট বা এক ঘণ্টা আগে, এতো ট্যালেন্ট কোন ছাত্র যে এই সময়ের মধ্যে পড়ে মুখস্ত করে লিখবে। এসময়, এমসিকিউ পদ্ধতি বন্ধ করে দেওয়া হবে বলে জানান তিনি।

সংবাদ সম্মেলনের শুরুতে ইতালি সফরের নানা দিক তুলে ধরেন প্রধানমন্ত্রী।

যমুনা অনলাইন: টিএফ









Leave a reply