‘ফেসবুকে বন্ধু’র সাথে প্রথম সাক্ষাৎ, কুপ্রস্তাবে রাজি না হওয়ায় খুন

|

ফেসবুকের মাধ্যমে তাদের পরিচয়, বন্ধুত্ব। এরপর এক পর্যায়ে উভয়ে সম্মত হন দেখা করতে। সে অনুযায়ী গতকাল রোববার ২৫ বছরের তরুণ হরিদাস নিরগুড়ে ও ২০ বছরের তরুণী অঙ্কিতা সাক্ষাৎ করেন।

প্রথম সাক্ষাতেই ফেসবুক বন্ধু অঙ্কিতার সঙ্গে শারীরিক সম্পর্ক করতে চেয়েছিল। কিন্তু মেয়েটি রাজি হয়নি। জোরাজোরির এক পর্যায়ে হরিদাস হত্যা করে অঙ্কিতাকে।

ঘটনাটি ঘটেছে মুম্বাইয়ে। স্থানীয় নালাসপাড়ার একটি বহুতল থেকে ওই তরুণীর দেহ রোববারই উদ্ধার করে পুলিশ।

হরিদাসকে গ্রেফতার করা হয়েছে। অভিযুক্তকে জেরা করে পুলিশ জানতে পেরেছে, রোববার বিকালে হরিদাসের ফ্ল্যাটে যান অঙ্কিতা। তখন ওই ফ্ল্যাট হরিদাস ছাড়া আর কেউ ছিলেন না। সেই সুযোগে অঙ্কিতার সঙ্গে শারীরিক সম্পর্ক তৈরি করতে চায় সে। কিন্তু হরিদাসকে বাধা দিয়ে ফ্ল্যাট থেকে বেরিয়ে আসার চেষ্টা করেন অঙ্কিতা। তখনই জুতোর ফিতে দিয়ে গলায় ফাঁস দিয়ে শ্বাসরোধ করে অঙ্কিতাকে খুন করে হরিদাস।

এর পরে অঙ্কিতার দেহ নিজের ফ্ল্যাটের বাইরে সিঁড়ির উপরে ফেলে দেয় হরিদাস। অপরিচিত এক তরুণীর দেহ দেখে বহুতলের বাসিন্দারাই পুলিশে খবর দেন। পুলিশ এসে প্রাথমিক তদন্তের পরেই হরিদাসকে আটক করে। জেরার পরে নিজের দোষ স্বীকার করে নেয় অভিযুক্ত। (সূত্র: টাইমস অব ইন্ডিয়া)।


সম্পর্কিত আরও পড়ুন





Leave a reply