আফ্রিদির ব্যাটিং দেখতে অন্য ব্যাটারদের আউট কামনা দর্শকদের

|

নিজের দলের ব্যাটারদের দ্রুত আউট হতে বলছেন সমর্থকরা। তাও যদি আবার সেই ব্যাটাররা থাকেন ২০০ রানের মাইলফলক স্পর্শের দ্বারপ্রান্তে। হ্যাঁ, এমনটাই হয়েছিলো পাকিস্তানের ক্রিকেটে। ভারতের বিপক্ষে টেস্ট ম্যাচে আফ্রিদির ব্যাটিং দেখতে ইউনিস খানের আউটের প্রার্থনা শুরু করেছিলেন দর্শকরা। সেই গল্পই শুনিয়েছেন ইউনিস খান।

ভারত পাকিস্তান ম্যাচে সাধারণত মাঠের উত্তাপ ছাড়িয়ে দর্শকদের মাঝেও থাকে উত্তেজনার পারদ। এমন ম্যাচেই ইউনিস খান বা মোহাম্মদ ইউসুফকে দ্রুত ফেরাতে বলছিলেন পাকিস্তানের দর্শকরা। তারাই ভারতীয় বোলারদের অনুরোধ করছিলেন ক্রিজে থাকা এই দুই ব্যাটসম্যানের যে কাউকে দ্রুত ফেরাতে।

সেই টেস্টে তখন মোহাম্মদ ইউসুফ ১৭০ আর ইউনিস খান ছিলেন ১৫০ রান নিয়ে ক্রিজে। এমন অবস্থায় সমর্থকদের এমন চিৎকারে কিছুটা অবাক হয়েছিলেন ইউনিস খান। পরে বুঝতে পারেন শহীদ আফ্রিদিকে ক্রিজে দেখতেই দর্শকদের এমন চাওয়া।

ইউনিস খান বলেন, আমি আশ্চর্য হচ্ছিলাম এটা ভেবে যে আমি ডাবল সেঞ্চুরির দিকে এগিয়ে যাচ্ছি অথচ কারোর এটা নিয়ে কোনো ভ্রুক্ষেপই নেই। তারা আসলে ক্রিজে আফ্রিদিকে চাচ্ছিল।

সেটি কোন ম্যাচ ছিলো তা অবশ্য খোলাসা করেন নি ইউনিস খান। তবে ইউসুফ আউট হওয়ার পর সেই ম্যাচে মাঠে নেমেছিলেন শহীদ আফ্রিদি। নেমেই চার- ছক্কায় সমর্থকদের উচ্ছ্বাসে ভাসিয়েছিলেন তিনি। কিন্তু তিনি আউট হয়ে যাবার পর পরই দেখা গেলো গ্যালারি ফাঁকা হতে শুরু করেছে।

ইউনিস খান এ নিয়ে বলেন, আশ্চর্যজনকভাবে ওর আউট হবার সঙ্গে সঙ্গে দর্শকেরাও চলে যাওয়া শুরু করল। তাদের ততক্ষণে পয়সা উসুল। কিন্তু আমার যে এদিকে ডাবল সেঞ্চুরি হয়ে যাচ্ছিল সে দিকে কেউ পাত্তাও দিচ্ছিল না!

বুমু বুম আফ্রিদির জনপ্রিয়তা পাকিস্তানে কতটুকু সেটি আর বলার অপেক্ষা রাখেনা। শুধু পাকিস্তানেই নয়, এশিয়া মহাদেশেই আফ্রিদির জনপ্রিয়তা আকাশচুম্বী।





সম্পর্কিত আরও পড়ুন







Leave a reply