ইরানে নৌবাহিনীর বৃহত্তম জাহাজে অগ্নিকাণ্ড; সন্দেহ ইসরায়েলের দিকে

|

ইরানের সবচেয়ে বড় রণতরী ‘খার্গ’ ডোবার কয়েক ঘণ্টার মধ্যেই রাষ্ট্রীয় তেল শোধনাগারে হলো- ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ড। আনুষ্ঠানিক দোষারোপ না করলেও দুটি ঘটনাকে ইসরায়েলের নাশকতা হিসেবে দেখছেন দেশটির অনেকে।

বুধবার বিকালে রাষ্ট্রায়াত্ত্ব ‘তোন্দ-গুইয়ান পেট্রোক্যামিকেলে’ ছড়ায় ভয়াবহ আগুন। রাজধানী থেকে ১২ মাইল দূরে শোধনাগারটির অবস্থান হলেও কালো ও ভারি ধোঁয়া তেহরানের প্রায় সব জায়গা থেকেই দেখা যাচ্ছিলো।

প্রাথমিক তদন্তে বলা হচ্ছে, লিকুইড গ্যাস সরবরাহ পাইপলাইনের ত্রুটি থেকেই অগ্নিকাণ্ড। এরফলে ১৮টি স্টোরেজ ট্যাংকারে আগুন ছড়ায়। পরিস্থিতি পুরোপুরি নিয়ন্ত্রণে এখনো কাজ করছে ফায়ার ব্রিগেড। কয়েক ঘণ্টা আগেই ওমান উপসাগরে ইরানি নৌবাহিনীর সবচেয়ে বড় যুদ্ধজাহাজ- খার্গে ছড়িয়ে পড়ে আগুন। ৪শ’ ক্রুকে নিরাপদে উদ্ধার করা গেলেও; দুপুরে ডুবে যায় জাহাজটি।

প্রশিক্ষণ ও সমরাস্ত্র বহনের কাজেই এটি ব্যবহৃত হতো। ইরানি কর্তৃপক্ষের ইঙ্গিত, দুটি অগ্নিকাণ্ডই মূলতঃ ইসরায়েলের চালানো নাশকতা।

এনএনআর/





সম্পর্কিত আরও পড়ুন







Leave a reply