মৌলভীবাজারে চাঁপাইফেরত আরও ১৭ জনের করোনা

|

মৌলভীবাজার প্রতিনিধি:

মৌলভীবাজারে চাঁপাইনবাবগঞ্জ ফেরত আরো ১৭ জনের করোনা সনাক্ত হয়েছে। মৌলভীবাজার শহরতলীর বড়কাপন এলাকায় বসবাসকারী এই ১৭ ক্ষুদ্র ব্যবসায়ী শহর গ্রামে ফেরি করে বিভিন্ন পণ্য বিক্রি করেন।

এর আগে শ্রীমঙ্গলে চাঁপাই ফেরত আরও ১২ জনের কোভিড সনাক্ত হয়েছিল। এ নিয়ে চাঁপাই ফেরত করোনা রোগীর সংখ্যা দাঁড়ালো ২৯জনে। এদের মধ্যে ভারতীয় ধরন আছে এমন আশঙ্কায় আতঙ্ক ছড়িয়েছে মানুষের মাঝে।

সিভিল সার্জন কার্যালয়সূত্র জানায়, চাঁপাইনবাবগঞ্জের বেশ কিছু পরিবার মৌলভীবাজার শহরতলীর বড়কাপন ও শ্রীমঙ্গল উপজেলার সিন্দুরখান এলাকায় বসবাস করে ফেরি করে মৌসুমী ফল ও বিভিন্ন পণ্য বিক্রি করেন। রোজার ঈদে তারা চাঁপাইনবাবগঞ্জ বাড়ি গিয়েছিলেন। তাদের মধ্যে কয়েকজন শ্রীমঙ্গলে ফেরার পর গত শনিবার (২৯ মে) তাদের পরিবারের সদস্যসহ ৩৪ জনের নমুনা পরীক্ষা করে ১২ জনের করোনা শনাক্ত হয়। তাদেরই দেয়া তথ্যের ভিত্তিতে মৌলভীবাজারের বড়কাপন ও চাঁদনীঘাট এলাকায় চাঁপাই ফেরত আরও ৬৩জনকে পরীক্ষা করা হয়।

গত সোমবার (৩১ মে) তাদের নমুনা সংগ্রহ করা হয়। বুধবার (০২ জুন) নমুনার ফলাফলে এদের মধ্যে আরো ১৭ জনের করোনা পজেটিভ আসে। সিভিল সার্জন চৌধুরী জালাল উদ্দিন মুর্শেদ বলেন, তারা সবাই আইসোলেশনে আছেন এবং তাদের বাড়ি লকডাউনে আছে।

বুধবার (০২ জুন) মোট ১১৯টি নমুনার মধ্যে ২৩টি রিপোর্ট পজেটিভ আসে। সংক্রমণের হার ১৯.৩০% এর মধ্যে চাঁপাইনবাবগঞ্জ ফেরত ১৭ জন। চাঁপাই ফেরত সংক্রমিতরা ভারতীয় ধরন বহন করছেন কিনা এটা জানতে হলে
জিনোম সিকুয়েন্স পরীক্ষার প্রয়োজন। এজন্য অনুরোধ করে ল্যাবে চিঠি পাঠানো হয়েছে। তারা সংরক্ষিত নমুনা রোগতত্ত্ব, রোগ নিয়ন্ত্রণ ও গবেষণা ইনস্টিটিউটের (আইইডিসিআর) এর পাঠাবে। জেলায় ২ জুন পর্যন্ত দুই হাজার ৫৩২ জনের করোনা শনাক্ত হয়েছে। সুস্থ হয়েছেন দুই হাজার ৩৩৬ জন। মারা গেছেন ৩০ জন।





সম্পর্কিত আরও পড়ুন







Leave a reply