এবার মিথ্যা তথ্য দিয়ে সংবাদ সম্মেলন মুক্তিযোদ্ধা পরিবারকে নির্যাতনকারী ব্যবসায়ীর

|

পটুয়াখালী প্রতিনিধি:

পটুয়াখালীতে মুক্তিযোদ্ধা পরিবারকে নির্যাতনে অভিযুক্ত সেই ব্যবসায়ী শুভাশিষ মুখার্জি পাল্টা একটি সংবাদ সম্মেলন করেছেন। বুধবার (২ জুন) দুপুরে পটুয়াখালী প্রেসক্লাবে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে শুভাশিষ মুখার্জি দাবি করেন, গত ২৫ মে তিনি ঘমি সংক্রান্ত বিরোধে ঘটনাস্থলে উপস্থিত ছিলেন না। তিনি বলেন, প্রয়াত মুক্তিযোদ্ধা খোকন চ্যাটার্জির পরিবারের সাথে তার কোনো বিরোধ নেই।

তবে থানায় তার নিজের দায়েরকৃত একটি সাধারণ ডায়েরিতে উল্লেখ করেন, উল্লিখিত তারিখে তিনি ঘটনাস্থলে উপস্থিত ছিলেন। তার স্বাক্ষরিত ওই ডায়েরিতে লেখা হয়েছে, মুক্তিযোদ্ধা পরিবারের সদস্যরা স্থাপনা নির্মাণ করতে গেলে তিনি বাধা দেন এবং তর্কে জড়ান।
এ ব্যাপারে তাকে প্রশ্ন করা হলে তিনি কোনো সদুত্তর দিতে পারেননি।

ওই সংবাদ সম্মেলনে শুভাশিষ মুখার্জি বলেন, মুক্তিযোদ্ধা খোকন চ্যাটার্জির স্ত্রী রিতা চ্যাটার্জি এবং তার পরিবারের করা সংবাদ সম্মেলনের তথ্যে ভিত্তিতে যমুনা টেলিভিশনের অনলাইন পোর্টালসহ বিভিন্ন গণমাধ্যম যে রিপোর্ট প্রকাশ করেছে, তা সত্য নয়। তাদের আনীত অভিযোগের সাথে শুভাশিষের কোনো সংশ্লিষ্টতা নেই বলে দাবি করা হয় হয় ওই সংবাদ সম্মেলনে।

শুভাশিষ দাবি করেন, সামাজিকভাবে হেয় করতে ভৌতিক তথ্য উপস্থাপন করে তার বিরুদ্ধে সংবাদ সম্মেলন করেছেন রিতা চ্যাটার্জি।

উল্লেখ্য, গত ২৮ মে পটুয়াখালী সদর থানায় শুভাশিষের স্বাক্ষরিত ডায়েরিতে (নং- ১২৮৮) স্পষ্ট বলা হয়েছে, ‌স্থাপনা নির্মাণের সময় তিনি সেখানে উপস্থিত হয়ে রিতা চ্যাটার্জি ও তার পরিবারের সদস্যদের নিষেধ করেন এবং এক পর্যায়ে তারা তর্ক বিতর্কে জড়িয়ে পরেন।

এছাড়াও সংবাদ সম্মেলনে শুভাশিষের দেয়া আদালত কর্তৃক অন্তবর্তীকালীন অস্থায়ী স্থীতি নিষেধাজ্ঞার একটি কাগজ সাংবাদিকদের কাছে সরবরাহ করা হয়। যেখানে বিবাদির তালিকায় নিজের নাম মুছে অন্য দুইজনের নাম উল্লেখ করেছেন শুভাশিষ।

সংবাদ সম্মেলনে অসঙ্গতিপূর্ণ তথ্য উপস্থাপন করার বিষয়ে গণমাধ্যম কর্মীরা তাকে প্রশ্ন করলে তিনি প্রসঙ্গ এড়িয়ে যান।





সম্পর্কিত আরও পড়ুন







Leave a reply