মালয়েশিয়ায় স্কুলে যৌন নিপীড়নের বিরুদ্ধে স্কুলছাত্রীর টিকটক ভিডিও ভাইরাল

|

আহমাদুল কবির, মালয়েশিয়া:

মালয়েশিয়ার স্কুলে যৌন নিপীড়ন বন্ধের দাবি জানিয়ে টিকটক ভিডিও শেয়ার করে সারা জাগিয়েছে ১৭ বছর বয়সী এক স্কুলছাত্রী। টিকটক ভিডিওতে এইন হুসনিজা সাইফুল নিজাম নামের ওই ছাত্রী নানা সময় স্কুল শিক্ষকদের দ্বারা যৌন নিপীড়নের বর্ণনা দেন।

এরই মধ্যে ভিডিওটি পুরো মালয়েশিয়ায় ভাইরাল হয়ে গেছে। অনেক স্কুল ছাত্রীও ভিডিওটি শেয়ার দিয়েছেন। টিকটক ভিডিওটির ওপর ভিত্তি করে দেশটিতে শুরু হয়েছে ‘মেক স্কুল আ সেফ প্লেস’ নামের একটি অনলাইন মুভমেন্ট। যা ছড়িয়ে পড়েছে অন্যান্য সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমেও। অনেকেই মালয়েশিয়ার স্কুলগুলোতে শিক্ষার্থীদের শারীরিক হেনস্থা এবং তাদের সাথে নোংরা ভাষা ব্যবহারের প্রতিবাদ জানিয়েছে।

এএফপিকে দেয়া এক সাক্ষাৎকারে এইন হুসনিজা বলেন, যখন তিনি স্কুলের এসব বিষয় নিয়ে কথা বলা শুরু করেন, তখন অনেকেই তাকে ঘৃণার চোখে দেখত। কিন্তু তিনি জানতেন না কেন তারা এভাবে দেখে।

এইন আরও বলেন, তিনি শুধু চেয়েছিলেন স্কুলে নিরাপদ পরিবেশ বজায় থাকুক। স্কুলগুলোতে যৌন নিপীড়ন থাকুক এটা তিনি চান না।

গত এপ্রিলে ওই ছাত্রীর শারীরিক শিক্ষার শিক্ষক তার সঙ্গে অশোভন আচরণ করে। মূলত টিকটক ভিডিওটিতে তিনি সেই ঘটনার বর্ণনা দিয়েছেন। এই ঘটনার পর অন্যরাও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে নিজেদের সাথে ঘটে যাওয়া ঘটনাগুলোর বর্ণনা দেয়।

মালয়েশিয়ার বিশিষ্টজনরাও বিষয়টি নিয়ে কথা বলেছেন। তারা বলেন, ঘটনাটি প্রমাণ করে যে এই বিষয়গুলো মালয়েশিয়ায় বহুদিন ধরে চলে আসছে।

অধিকার কর্মীরা বলছে, স্কুলে নির্যাতনের ঘটনা নিয়ে এখনই ভাবা উচিত। দ্রুত এর একটা সমাধান করা দরকার। একই সঙ্গে স্কুলে যৌন নিপীড়নের বিরুদ্ধে প্রচলিত যে আইন রয়েছে তারও সংস্কার প্রয়োজন।

এদিকে, ভিডিওটি ছড়িয়ে পড়ার পর নিজের নিরাপত্তার কথা বিবেচনা করে এইন হুসনিজা স্কুলে যাওয়া বন্ধ করে দিয়েছেন।





সম্পর্কিত আরও পড়ুন







Leave a reply