‘শার্লক’ কাগজে শনাক্ত করা যাবে ক্যান্সার

|

ম্যাসাচুসেটস ইন্সটিটিউট অফ টেকনোলজি বিশ্বের শীর্ষস্থানীয় গবেষণা প্রতিষ্ঠান। সম্প্রতি ঝ্যাং ফেং এর নেতৃত্বে এই প্রতিষ্ঠানেরই একদল গবেষক ক্যান্সার চিকিৎসায় অর্জন করলেন এক মাইলফলক। গত বৃহস্পতিবার সাইন্স জার্নালে এই গবেষণাটি প্রকাশ করা হয়। এতে বলা হয়েছে ‘শার্লক’ নামের নতুন এক পরীক্ষা পদ্ধতিতে সহজেই ক্যান্সার শনাক্ত করা যাবে। এই পদ্ধতিটি একেবারেই সহজ। ঝ্যাং বলেছেন, অন্তঃসত্ত্বার পরীক্ষার মতো সহজেই এ পরীক্ষাটি করা যাবে।

এই পরীক্ষায় একটি কাগজে মানুষের জেনেটিক নকশা খালি চোখেই দেখা যাবে। ফলে, দ্রুত চিহ্নিত হবে মরণঘাতী ভাইরাস এবং ক্যান্সারের সংক্রমণ। ‘শার্লক কাগজ’ স্যাম্পলে ডোবালেই কিছু রেখা ফুটে উঠবে তাতে। তা পর্যালোচনা করলেই বোঝা যাবে ক্যান্সার হয়েছে কিনা।

রক্ত বা টিউমারের স্যাম্পলে ‘শার্লক কাগজ’ ডোবালে ফুসফুসের ক্যান্সারের পাশাপাশি জিকা বা ডেঙ্গুও ধরা পড়বে। শুধু তাই নয় অন্যান্য পদ্ধতির চেয়ে এতে স্যাম্পলও কম দরকার হয়। শুধু রোগ নির্ণয় নয় অন্যান্য বৈজ্ঞানিক পরীক্ষা যেমন নিউক্লিক এসিডের ক্রম নির্ধারণে এটি কার্যকরী।

সঠিক সময়ে ক্যান্সার ধরা না পড়ায় এই রোগে বেশিরভাগ রোগী মারা যান। তাই এই প্রক্রিয়া ক্যান্সার প্রতিরোধে যুগান্তকারী ভুমিকা রাখবে বলে মনে করছেন সংশ্লিষ্টরা।

যমুনা অনলাইন: এনপি/টিএফ









Leave a reply