মোবাইল কিনে না দেয়ায় কিশোরের আত্মহত্যা

|

পাবনা প্রতিনিধি:

পাবনার সাঁথিয়ায় মোবাইল ফোন কিনে না দেওয়ায় বাবা-মায়ের ওপর অভিমান করে গলায় ফাঁস নিয়ে আসিফ হোসেন (১৮) নামে এক কিশোরের আত্মহত্যার অভিযোগ উঠেছে।

সোমবার (৩১ মে) বিকেল তিনটার দিকে উপজেলার নন্দনপুর ইউনিয়নের ভাটু খান মাহমুদপুর গ্রামে আত্মহত্যার ঘটনাটি ঘটে। মৃত আসিফ ওই গ্রামের দিনমজুর সাইদ ফকিরের ছেলে। পেশায় আসিফ ভ্যান চালক ছিলেন বলে জানা গেছে।

পুলিশ ও স্থানীয়রা জানায়, কয়েকদিন ধরেই আসিফ তার দরিদ্র বাবা সাইদের কাছ থেকে একটি এন্ড্রয়েট মোবাইল ফোন কিনে দেওয়ার বায়না ধরে। কিন্তু দরিদ্র বাবার অভাবের সংসারের কারণে ছেলেকে মোবাইল কিনে দিতে পারেনি বাবা সাইদ ফকির।

সোমবার দুপুরে বাড়িতে কেউ না থাকায় তাদের নিজ ঘরের আড়ার সাথে গলায় দড়ি পেঁচিয়ে ঝুলে পড়ে। কিছু সময় পর তার মা হাসি খাতুন তাকে ঝুলন্ত অবস্থায় দেখে চিৎকার করলে প্রতিবেশীরা এসে উদ্ধার করে দ্রুত সাঁথিয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যায়। হাসপাতালের কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করে।

স্থানীয়রা আরও জানান, এলাকায় শিক্ষার্থী এবং শিশু কিশোররা মোবাইলে ভিডিও গেমস খেলায় ব্যাপকভাবে আসক্ত হয়ে পরেছে। একারণেই আজকের এই আত্মহত্যার ঘটনাটি ঘটেছে বলে তারা মনে করে।

ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে সাঁথিয়া থানার পরিদর্শক (তদন্ত) মো. আমিনুল ইসলাম জানান, স্থানীয়দের কাছে খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে। এ ঘটনায় থানায় একটি ইউডি মামলা হয়েছে।





সম্পর্কিত আরও পড়ুন







Leave a reply