‘আমি চলে যাচ্ছি কারণ রিয়াল মাদ্রিদের আর আমার উপর ভরসা নেই’

|

ক্লাব ছাড়ার কারণ জানিয়ে ভক্তদের প্রতি লেখা খোলা চিঠিতে রিয়াল মাদ্রিদের সদ্য বিদায়ী কোচ জিনেদিন জিদান জানিয়েছেন, ২০১৮ সালে ক্লাব ছাড়ার সাথে এবারকার পরিস্থিতি অনেকটাই আলাদা। আমি চলে যাচ্ছি কারণ আমি অনুভব করি যে ক্লাবটির আর আমার উপর ভরসা নেই। যে ভরসা দরকার মাঝারি বা দীর্ঘমেয়াদে কিছু অর্জনের জন্য।

চিঠিটি আজ সোমবার (৩১ মে) প্রকাশিত হয়েছে এএস স্পোর্টসে।

মাদ্রিদের ডাগআউটে দাঁড়িয়ে টানা তিনটি চ্যাম্পিয়ন্স লিগ জয়ী এই কিংবদন্তী তার চিঠিতে লেখেন, ২০ বছরেরও বেশি সময় ধরে প্রথম যেদিন থেকেই মাদ্রিদের সাদা শার্ট পরেছিলাম, আপনাদের জন্য প্রদর্শন করেছি আমার ভালোবাসা। আমি সবসময় অনুভব করেছি যে আমাদের মধ্যে বিশেষ একটি সম্পর্ক স্থাপিত হয়েছে। একজন খেলোয়াড় এবং সর্বকালের সর্বশ্রেষ্ঠ ক্লাবের কোচ হিসেবে অপরিসীম সম্মান আমি পেয়েছি। তবে সবকিছুর পরে, আমি আপনাদের মতোই মাদ্রিদের আরও একজন ভক্ত। তাই ভক্তদের প্রতি বিদায়ী এই বার্তাতে মাদ্রিদের কোচ হিসেবে পদত্যাগের কারণটি বলছি।

জিদান বলেন, ২০১৮ সালে ৮ মাসের ব্যবধানে মাদ্রিদে তিনি ফিরেছিলেন কেবল ফ্লোরেন্তিনো পেরেজের কথায়ই নয়, বরং এর পেছনে ছিলো প্রতিদিন পথেঘাটে দেখা হওয়া অগণিত ভক্তদের প্রত্যাশা, যারা প্রতিনিয়ত তাকে মাদ্রিদের ডাগআউটে ফেরার কথা বলে যাচ্ছিলো। তিনি বলেন, সে সময় আমি আবারও একজন মাদ্রিদিস্তা হিসেবে বৃহৎ এই পরিবারের ভালোবাসা অনুভব করেছি। মাদ্রিদে কাটানো ২০ বছরই আমার জীবনে ঘটা সর্বশ্রেষ্ঠ ঘটনা। এ জন্য প্রেসিডেন্ট পেরেজের কাছেও আমি চিরঋণী।

ক্লাব ছাড়ার প্রসঙ্গে তিনি বলেন, আমি রিয়াল মাদ্রিদের মতো ক্লাবের চাহিদা জানি। আমি জানি যখন আপনি জিতবেন না, আপনাকে চলে যেতে হবে। তবে এটির সাথে একটি খুব গুরুত্বপূর্ণ বিষয় ক্লাব কর্তৃপক্ষ ভুলে গিয়েছে যে খেলোয়াড়দের সাথে সম্পর্কের ক্ষেত্রে কী পরিবর্তনটা আমি এনেছিলাম। সেই সম্পর্ক দলের সাথে এবং আশেপাশে কাজ করা দেড়শ লোকের সাথে। আমি বিজয়ীর মানসিকতা ধারণ করি এবং এসেছিলাম ট্রফি জিততে। তবে এর চেয়েও গুরুত্বপূর্ণ হচ্ছে ক্লাবের মানুষেরা, তাদের অনুভূতি ও জীবন। অনেক ক্ষেত্রেই এই বিষয়গুলিকে এবার বিবেচনায় নেওয়া হয়নি। একটি দুর্দান্ত ক্লাবের গতিশীলতা বজায় রাখার জন্য যা কিছু প্রয়োজন সেগুলোকেও গুরুত্ব দেয়া হয়নি। আর কিছুটা হলেও এসবের জন্য আমাকে তিরস্কারও করা হয়েছে।

তিনি আরো বলেন, বর্তমানে বড় ক্লাবগুলোতে ডাগআউটে কোচের মেয়াদ বড়জোর দুই মৌসুম। এই মেয়াদ দীর্ঘতর করার জন্য দরকার মানবিক সম্পর্ক যা অর্থের চেয়ে গুরুত্বপূর্ণ, খ্যাতির চেয়ে গুরুত্বপূর্ণ, সবকিছুর চেয়ে গুরুত্বপূর্ণ। কিন্তু সেই চর্চা আর অব্যাহত থাকেনি। পরাজয়ের পরে আমি যখন প্রেসে পড়েছিলাম যে, পরের খেলাটি না জিতলে আমাকে বরখাস্ত করা হবে, সেটি আমার এবং পুরো দলকে আঘাত করেছে। কারণ ইচ্ছাকৃতভাবে মিডিয়ায় পাঠানো এই বার্তাগুলি স্কোয়াডকে নেতিবাচকভাবে প্রভাবিত করেছিল।

চিঠির শেষাংশে সাংবাদিকদের উদ্দেশ্যে তিনি বলেন, আমি সবসময়ই বিতর্ক সম্পর্কিত না এমন প্রশ্নগুলি পছন্দ করতাম। বরং আমি পছন্দ করি খেলা এবং খেলোয়াড়দের ব্যাপারে বলতে। কারণ ফুটবলে তারাই সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ।





সম্পর্কিত আরও পড়ুন







Leave a reply