গাইবান্ধায় চেতনানাশক খাইয়ে বাড়ি লুট

|

গাইবান্ধা প্রতিনিধি:

গাইবান্ধার সুন্দরগঞ্জে হিন্দু সম্প্রদায়ের কয়েকটি পরিবারের সদস্যদের চেতনানাশক খাইয়ে নগদ টাকাসহ মালামাল লুটপাটের ঘটনা ঘটেছে। গত এক মাসে অন্তত ১০টি বাড়িতে ঘটেছে এমন ঘটনা। এ অবস্থায় ভয় আতঙ্ক আর নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছে এলাকার মানুষ। যদিও এমন ঘটনা রোধ করাসহ সংঘবদ্ধ চক্রটিকে আইনের আওতায় আনার তৎপরতার কথা জানিয়েছে স্থানীয় জনপ্রতিনিধি ও পুলিশ প্রশাসন।

ভুক্তভোগী উত্তম কুমার জানান, বৃহস্পতিবার সন্ধ্যার পর হঠাৎ করেই ঘুমে অচেতন হয়ে পড়ে পরিবারের সদস্যরা। কে বা কাহারা গোপনে বাড়িতে ঢুকে টিউবওয়েলের পানিতে চেতনানাশক দিয়ে যায়। এতে অসুস্থসহ একদিন পুরো ঘুমেই কাটিয়ে দেন তারা। উত্তম কুমারের বাড়ি ছাড়াও একই গ্রামের রতন কুমার, সুজন চন্দ্র ও দিলীপ কুমারের বাড়িতেও ঘটেছে এমন ঘটনা।

ভুক্তভোগীদের দাবি, টিউবওয়েলের পানি ও খাবার লবণে কোন একটি চক্রের সদস্য কৌশলে চেতনানাশক মিশেয়ে যায়। এরপর রাত না হতেই ঘুমিয়ে পড়েন পরিবারের লোকজন। এ সুযোগ চক্রটি বাড়িতে ঢুকে নগদ টাকা, স্বর্ণালংকার ও মালামাল লুট করে নিয়ে যায়। ঘটনার প্রতিকার চেয়ে থানায় লিখিত অভিযোগ ও সাধারণ ডায়েরিও (জিডি) করেছে কেউ কেউ।

দহবন্দ ইউপি পরিষদ চেয়ারম্যান গোলাম কবির মুকুল বলেন, ঘটনা প্রতিরোধে ইউনিয়নজুড়ে তৎপরতার চলছে।
সুন্দরগঞ্জ থানা ওসি আবদুল্লাহিল জামান জানান, ঘটনাগুলো অনুসন্ধানসহ জড়িত চক্রকে গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে।





সম্পর্কিত আরও পড়ুন







Leave a reply