ডিভোর্সের পর বিলের কাছ থেকে কী পরিমাণ সম্পত্তি পাবেন মেলিন্ডা?

|

বিল-মেলিন্ডার এই হাসি এখন শুধুই স্মৃতি?

দীর্ঘ ২৭ বছরের দাম্পত্যের ইতি টানলেন বিশ্বের শীর্ষ ধনী বিল গেটস ও তার স্ত্রী মেলিন্ডা। টুইটারে বিবাহ বিচ্ছেদের ঘোষণা দেয়ার পর থেকেই চলছে আলোড়ন। সুখী দম্পতির প্রতিচ্ছবি ছিলেন যারা, তাদের এমন সিদ্ধান্তে হতবাক বিশ্ব। বিচ্ছেদের কারণ আপাতত অজানা। তবে গুঞ্জন তো আর থেমে থাকার নয়। বলা হচ্ছে- এটিই হবে বিশ্বের সবচেয়ে ব্যয়বহুল ডিভোর্স।

বিখ্যাত মার্কিন ম্যাগাজিন ফোর্বসের তথ্যমতে, বিশ্বের চতুর্থ ধনী বিল গেটসের সম্পদের পরিমাণ প্রায় ১৩০ বিলিয়ন ডলার। এর কতভাগ তিনি মেলিন্ডাকে দেবেন সেটি নিয়ে চলছে তুমুল জল্পনা-কল্পনা।

দুবছর আগে বিশ্বের অন্যতম শীর্ষ ধনী জেফ বেজোস ও তার তৎকালীন স্ত্রী ম্যাকেঞ্জির বিচ্ছেদ ঘটে। সে সময় ম্যাকেঞ্জি তার ধনকুবের পার্টনারের কাছ থেকে পেয়েছিলেন ৩৮ বিলিয়ন ডলারের সম্পত্তি। মেলিন্ডা কি এরচেয়েও বেশি সম্পত্তি পাবেন? বিল গেটসের সম্পদশালায় রয়েছে প্রায় ২ লাখ ৪২ হাজার একরের কৃষিজমি, যা ছড়িয়ে আছে ১৮টি রাজ্য জুড়ে। ৫ রাজ্যে তাদের বাড়ি আছে। আছে দামি গাড়ির বহর, যার একটি ২ মিলিয়ন ডলারের দুর্লভ পোরশে গাড়ি। শিল্প সংগ্রহশালায় আছে লিওনার্দো দ্য ভিঞ্চির নিজ হাতে লেখা বৈজ্ঞানিক নোটবুক; যা বিল নিলামে কিনেছেন ৩ কোটি ডলার দিয়ে। এছাড়া মাইক্রোসফট বিভিন্ন খ্যাতনামা প্রতিষ্ঠানে তার মালিকানা, অংশিদারিত্ব তো আছেই।

বিলের সম্পদের কতটুকু মেলিন্ডা পাচ্ছেন, তা সময়ই বলে দেবে। তবে, মেলিন্ডা দ্রুত বিবাহ বিচ্ছেদ কার্যকরের আবেদন জানিয়েছেন আদালতের কাছে। সেখানে কোনো ধরনের ভরনপোষণ দাবি করা হয়নি।

মেলিন্ডার সম্পত্তির ভাগ নিয়ে অস্পষ্টতা থাকলেও বিলের তিন ছেলেমেয়ে যে আপাতত সম্পত্তির কানাকড়িও পাচ্ছেন না সেটি নিশ্চিত হয়ে গেছে অনেক আগে। ২০১০ সালে বিল গেটস ঘোষণা দেন, সন্তানদের কোনো সম্পত্তি দেবেন না তিনি। প্রত্যেকের জন্য ১ কোটি ডলারের ট্রাস্ট তৈরি করে রেখেছেন; যা সন্তানরা পাবে বিলের মৃত্যুর পর। অগাধ অর্থ-প্রাচুর্যে সন্তানরা যেন কর্মস্পৃহা হারিয়ে না ফেলে সেজন্যই এ ব্যবস্থা নিয়েছেন বিল। শুধু কি তাই, ১৪ বছর বয়স হবার আগ পর্যন্ত বড় মেয়ে জেনিফার গেটসকে মোবাইল ফোনটা পর্যন্ত দেননি।

নিঃসন্দেহে পরিবার ও সমাজের জন্য অনেক ভালো উদ্যোগ আছে বিল-মেলিন্ডার। বিশ্বের অন্যতম বৃহৎ দাতব্য সংস্থাও চালিয়েছেন একসাথে। তবু কথায় বলে- শেষ ভালো যার, সব ভালো তার। যৌথ পথচলার শেষাংশে এসে বিল-মেলিন্ডাও নিশ্চয় সেটি মনে রাখবেন।









Leave a reply